ঢাকা | এপ্রিল ১৪, ২০২৪ - ৪:২৬ অপরাহ্ন

রাজশাহীসহ বজ্রপাতে একদিনে ৬ মৃত্যু

  • আপডেট: Monday, July 3, 2023 - 12:00 am

অনলাইন ডেস্ক: দেশের পাঁচ জেলায় বজ্রপাতে এক দিনে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এসব ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন।

রোববার জামালপুরে দু’জন এবং ময়মনসিংহ, রাজশাহী, নাটোর ও কুড়িগ্রামে একজন করে মারা গেছেন।

জামালপুর:

জামালপুর পৌর এলাকার হাটচন্দ্রা ও বানিয়াবাজার এলাকায় বজ্রপাতে মোফাজ্জল শেখ (৪৫) ও আবদুল খালেক (৩৭) নামে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।

নিহতের স্বজনেরা জানান, বিকেলে হাটচন্দ্রা মধ্যপাড়া এলাকায় বৃষ্টির মধ্যে মাঠে গরু আনতে যান মোফাজ্জল শেখ। এ সময় বজ্রপাত হলে মোফাজ্জল শেখসহ তার দুটি গরুর মৃত্যু হয়।

একই সময় বৃষ্টির মধ্যে বানিয়াবাজার এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদে মাছ ধরতে নামেন আবদুল খালেক নামে এক মাছ ব্যবসায়ী। এ সময় বজ্রপাত হলে তার মৃত্যু হয়।

ময়মনসিংহ:

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার বিলডোরা মোজাকান্দা গ্রামে গতকাল সকালে বজ্রপাতে ইন্তাজ আলী (৭০) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। তিনি ওই গ্রামের মৃত আমির উদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, ইন্তাজ আলীর হাঁসের খামার রয়েছে। আজ সকাল ১০টার দিকে বাড়ির পাশের জমি থেকে হাঁস আনতে গেলে বজ্রপাতে তার মৃত্যু হয়।

হালুয়াঘাট থানার ওসি সুমন চন্দ্র রায় বলেন, নিহতের পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফনের জন্য লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

রাজশাহী:

এদিকে রাজশাহীর নওহাটা পৌরসভা এলাকায় বোনের বাড়িতে বেড়াতে এসে বজ্রপাতে জয় (১৭) নামে এক কিশোর নিহত হয়েছে।

সে শহরের বড়বনগ্রাম এলাকার শেখপাড়ার জিয়াউল হকের ছেলে।

জয়ের ভগ্নিপতি পাকুড়িয়া গ্রামের জিয়ারুল ইসলাম জানান, রোববার সকালে তার চাচাতো শ্যালক জয় ও তার বন্ধু সিয়াম ঈদের দাওয়াতে বেড়াতে আসে।

দুপুরে খাবার খেয়ে তারা পাকুড়িয়া ব্রিজের দিকে যায়। এর কিছুক্ষণ পরই বজ্রপাতে জয় মারা যায়। এ সময় তার বন্ধু সিয়াম আহত হয়। তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নাটোর:

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় ফুটবল খেলার সময় বজ্রপাতে শপথ (২৫) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি পার্শ্ববর্তী লালপুর উপজেলার চংধুপইল ইউনিয়নের মিলকিপাড়া গ্রামের সোলায়মান বাবলুর ছেলে।

এলাকাবাসী জানান, রোববার বিকেলে উপজেলার দয়ারামপুর ইউনিয়নের মিশ্রিপাড়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মিশ্রিপাড়া ও পার্শ্ববর্তী আব্দুলপুর এলাকার মধ্যে ফুটবল খেলা চলছিল।

এ সময় বজ্রপাত হলে শপথ গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা দয়ারামপুর বাজারের একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কুড়িগ্রাম:

এদিকে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার তিনতেলী গ্রামে খালে পাট ধুতে গিয়ে বজ্রপাতে শুকুর আলী (৩৫) নামে এক কৃষক নিহত হয়েছেন। তিনি ওই গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, রোববার দুপুরে বাড়ির পাশে খালে জাগ দেওয়া পাট পরিষ্কার করছিলেন কৃষক শুকুর আলী। এ সময় বজ্রপাত হলে তার মৃত্যু হয়।

রৌমারী থানার ওসি রূপকুমার সরকার বলেন, শুকুর আলী নামে এক কৃষক বজ্রপাতে মারা গেছেন। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হবে।

সোনালী/জেআর