ঢাকা | এপ্রিল ১৫, ২০২৪ - ৫:০১ পূর্বাহ্ন

রাজশাহী সিটি নির্বাচন || জামানত হারাচ্ছেন তিন মেয়রপ্রার্থী

  • আপডেট: Thursday, June 22, 2023 - 7:00 pm

অনলাইন ডেস্ক: রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত ও ১৪ দল সমর্থিত মেয়রপ্রার্থী এইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেছেন। তার কাছে পরাজিত হয়েছেন অপর তিন মেয়রপ্রার্থী।

তাই নির্বাচন কমিশনের বিধি অনুযায়ী খুবই কম সংখ্যক ভোট পাওয়ায় জামানত হারাতে যাচ্ছেন তারা।

কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী প্রার্থীকে মোট ভোটারের আট ভাগের অন্তত একভাগ ভোট পেতে হবে।

যদি কোনো প্রার্থী তা না পান তাহলে তার জামানতের অর্থ বাজেয়াপ্ত করা হয়।

আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয়ের সহকারী রিটার্নিং অফিসার শহীদুল ইসলাম বলেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে চারজন মেয়রপ্রার্থী ছিলেন।

তারা মোট ভোট পেয়েছেন ১ লাখ ৯৫ হাজার ৭৫৮ ভোট। এই প্রাপ্ত ভোটের আট ভাগের একভাগ হচ্ছে ২৪ হাজার ৪৫৭ ভোট। কিন্তু একমাত্র খায়রুজ্জামান লিটন ছাড়া অন্য কোনো মেয়রপ্রার্থী সমপরিমাণের ভোট পাননি। ফলে অন্য মেয়রপ্রার্থীরা জামানত হারাচ্ছেন।

এর আগে বুধবার (২১ জুন) রাত ৯টার দিকে রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে রাসিক নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। সিটি করপোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো. দেলোয়ার হোসেন নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, রাসিক নির্বাচনে মোট ৫৬ দশমিক ২০ শতাংশ ভোট পড়েছে। এছাড়া বাতিলকৃত ভোটের সংখ্যা ২ হাজার ৭০টি। অনেকে ভোট দিলেও চূড়ান্ত বাটনে চাপ দেননি।

আবার অনেকে একই পদে একাধিক ব্যক্তিকে ভোট দিয়েছেন। তাই এমন সব কারণে এই ভোটগুলো বাতিল বলে গণ্য করা হয়েছে।

প্রাপ্ত ভোটের ভিত্তিতে রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

তিনি ভোট পেয়েছেন ১ লাখ ৬০ হাজার ২৯০ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থী মাওলানা মুরশিদ আলম পেয়েছেন ১৩ হাজার ৪৮৩ ভোট।

এছাড়া জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকের সাইফুল ইসলাম স্বপন পেয়েছেন ১০ হাজার ২৭২ ভোট। আর জাকের পার্টির মেয়রপ্রার্থী গোলাপ ফুল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে লতিফ আনোয়ার পেয়েছেন ১১ হাজার ৭১৩ ভোট।

সোনালী/জেআর