ঢাকা | এপ্রিল ২০, ২০২৪ - ৭:১৪ পূর্বাহ্ন

রাজশাহীতে স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে আত্মহত্যা করলেন স্বামী!

  • আপডেট: Thursday, June 15, 2023 - 4:00 pm

অনলাইন ডেস্ক: স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) সকালে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী ইউনিয়নের ঝিনা রেলগেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

দুপুরে জিআরপি পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তার মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত ওই যুবকের নাম মতিউর রহমান (২২)।

তিনি রাজশাহীর বাঘা উপজেলার ঝিনা রেলগেট গ্রামের ইসরাফিল হোসেনের ছেলে। খবর পেয়ে রেলওয়ে জিআরপি থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার দুপুরে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

তবে পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকায় পরে তার মরদেহ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে।

স্থানীয়রা জানান, দুই বছর আগে মতিউর রহমান বিয়ে করেন। তাদের সংসারে দুই মাসের একটি সন্তান রয়েছে। কিছুদিন আগে স্বামীর সঙ্গে রাগ করে স্ত্রী আজমিরা খাতুন বাবার বাড়িতে চলে যান।

এরপর তাকে নানাভাবে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন মতিউর। বৃহস্পতিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে বাড়ি সংলগ্ন রেল লাইনের ওপরে যান তিনি।

এ সময় ঈশ্বরর্দী থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী কমিউটার ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দেন। পরে স্থানীয়রা জিআরপি থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

ঈশ্বরর্দী জিআরপি থানার উপ-পরিদর্শক এসআই) হারুনুজ্জামান রুমেল বলেন, রাজশাহীর বাঘার আড়ানী ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য তুজাম উদ্দিন পুলিশকে জানিয়েছেন মতিউর দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক চাপে মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন।

তিনি ট্রেনে বাদাম বিক্রি করতেন। স্ত্রীর ওপর অভিমান করে তিনি আজ সকালে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। খরব পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। মরদেহ উদ্ধার করাও হয়।

কিন্তু পরিবারের অভিযোগ না থাকায় মরদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এদিকে, একমাত্র কর্মঠ ছেলেকে হারিয়ে মতিউর রহমানের মা রঙ্গিলা বেগম এখন বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন। এ ঘটনায় বাঘার ওই গ্রামে ও পরিবারে সদস্যদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

সোনালী/জেআর