ঢাকা | এপ্রিল ২০, ২০২৪ - ৩:২১ পূর্বাহ্ন

নাচোলের হাঁড়িভাঙা আম গেল সুইডেনে

  • আপডেট: Tuesday, June 13, 2023 - 11:00 am

অনলাইন ডেস্ক: আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে এই ফলের স্বাদ ও সুবাস ছড়িয়ে পড়েছে ইউরোপে। পশ্চিমের এ মহাদেশে এখন আমও রপ্তানি হচ্ছে। সোমবার সুইডেনের উদ্দেশে রওনা করেছে এক টন হাঁড়িভাঙা আম।

আমগুলো জেলার নাচোল থেকে সড়কপথে ঢাকা বিমানবন্দরে নেওয়া হয়। সেখান থেকে উড়োজাহাজে করে পাড়ি দেয় দেশের সীমানা। মঙ্গলবার একই দেশে যাবে আরও এক টন আম। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রপ্তানিকারক রফিকুল ইসলাম।

জানা গেছে, গত মাসের প্রথম দিকে নাচোল থেকে সবজি রপ্তানি হয়েছিল সুইডেনে। এরপর ২৫ মে একই এলাকা থেকে প্রথম দফায় সাত টন ক্ষীরশাপাতি আম লন্ডন ও সুইডেনে যায়। এরই ধারাবাহিকতায় যাচ্ছে হাঁড়িভাঙা।

নাচোলের আমচাষি রফিকুল ইসলাম জানান, উপজেলার গোলাবাড়ি ইউনিয়নের তেনবোনা এলাকায় নিজের ও লিজ নেওয়া ৮৪০ বিঘা জমিতে আমগাছ রোপণ করেছেন।

এসব বাগানে হাইব্রিড জাতের বারি ৪, ব্যানানা, আম্রপালি, কাটিমন ও দেশি জাতের ক্ষীরশাপাতি আম চাষ করা হয়েছে। ফলন ভালো হওয়ার পাশাপাশি গুণেমানে ভালো হওয়ায় গত বছর আম রপ্তানি হয়েছিল।

এ বছর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক ড. পলাশ সরকারের সহযোগিতায় উত্তম কৃষি চর্চা পদ্ধতিতে আম চাষ করায় বিদেশি ক্রেতাদের বেশ চাহিদা দেখা যাচ্ছে। এ বছর তাঁর বাগানের প্রায় সব আমই বিদেশে যাবে বলে তিনি আশা করছেন।

সুইডেনে থাকেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার মেসার্স এমবিবি এগ্রো লিমিটেডের স্বত্বাধিকারী মো. বদরুদ্দোজা। তাঁর মাধ্যমেই ইউরোপে রপ্তানি হচ্ছে আম।

বদরুদ্দোজা বলেন, আমি ২০১২ সাল থেকে আম ও বিভিন্ন ধরনের সবজি সুইডেনে রপ্তানি করি; এবারও করছি। এ বছর এখন পর্যন্ত চার টন আম সুইডেনে ও তিন টন আম লন্ডনে পাঠিয়েছি।

চাহিদা বাড়লে আরও পাঠানো হবে। আমি সুইডেনের স্টকহোমে থাকায় সেখানের ব্যবসায়ীরা আমাকে আমের চাহিদা দেন। এবার শতাধিক টন আম বিদেশে রপ্তানি করতে পারব বলে আশা করছি।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক পলাশ সরকার বলেন, ইউরোপে আম ও সবজি রপ্তানি হওয়ায় এই জেলার অর্থনৈতিক চিত্র পাল্টে যাবে। প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা আসায় দেশেরও উন্নতি হবে। পণ্যের গুণমান ভালো রাখলে রপ্তানি ক্রমেই বাড়তে থাকবে।

সোনালী/জেআর