ঢাকা | এপ্রিল ১৯, ২০২৪ - ৮:৫২ পূর্বাহ্ন

সিটি নির্বাচন || রাজশাহী বিএনপির ১৬ নেতাকর্মীকে বহিষ্কারের সুপারিশ

  • আপডেট: Monday, June 5, 2023 - 3:00 pm

অনলাইন ডেস্ক: আসন্ন রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক) নির্বাচনে অংশ নেয়ায় বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের ১৬ নেতাকর্মীকে দল থেকে বহিষ্কাররে জন্য সুপারিশ করা হয়েছে।

রোববার মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট এরশাদ আলী ঈশা ও সদস্য সচিব মামুন অর রশীদ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে কেন্দ্রীয় বিএনপির কাছে সুপারিশ করা হয়।

বহিষ্কারের জন্য সুপারিশকৃত বিএনপির নেতারা সকলেই কাউন্সিলর পদে নির্বাচনে অংশ নিতে মনোনয়ন তুলেছেন।

তারা হলেন, রাজপাড়া থানা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি বদিউজ্জামাল বদি (ওয়ার্ড ৬), মহানগরের ১১ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সভাপতি আবু বকর কিনু, শাহ মখদুম থানার সাবেক সহসভাপতি মো. টুটুল (ওয়ার্ড ১৪), একই থানার সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সোবহান লিটন (ওয়ার্ড ১৫), মহানগর যুবদলের সাবেক সহ-সভাপতি বেলাল আহমেদ (ওয়ার্ড ১৬), মহানগর যুবদলের সাবেক শ্রম বিষয়ক সম্পাদক রনি হোসেন রুহুল (ওয়ার্ড ১৬), মহানগর যুবদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুজ্জামান টিটু (ওয়ার্ড ১৯), ২২ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মির্জা রিপন, বোয়ালিয়া থানা (পূর্ব) যুবদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আলিফ আল মাহমুদ লুকেন (ওয়ার্ড ২৫), মহানগর বিএনপির সাবেক সহ আনোয়ারুল আমিন আজব (ওয়ার্ড ২৭), মতিহার থানা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি আশরাফুল হাসান বাচ্চু (ওয়ার্ড ২৮)।

এছাড়া সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় পাঁচজন মহিলা নেত্রী বহিষ্কারের জন্য সুপারিশ করা হয়েছে।

তারা হলেন- মহানগর মহিলা দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মুসলিমা বেগম বেলী (ওয়ার্ড ৭, ৮ ও ১০), বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক আলতাফুন নেসা পুতুল (ওয়ার্ড ৯, ১১ ও ১২), মহানগর মহিলা দলের ১নং যুগ্ম সম্পাদক সামসুন নাহার (ওয়ার্ড ১৩, ১৪ ও ১৫) সহ-সভাপতি শাহনাজ বেগম শিখা (ওয়ার্ড ২২, ২৩ ও ২৪) এবং যুগ্ম সম্পাদক আয়েশা খাতুন মুক্তি (ওয়ার্ড ২৫,২৮ ও ২৯)।

এ বিষয়ে মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এরশাদ আলী ঈশা বলেন, দল বর্তমান সরকারের অধীনে কোনো ধরনের নির্বাচনে অংশ নেবে না। সেজন্য সিটি করপোরেশনসহ স্থানীয় সব নির্বাচন বয়কট করেছে।

একইসঙ্গে এই নির্বাচনে অংশ না দিতে নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দিয়েছে। কিন্তু তারা দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। সেজন্য দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গ, দলের সিদ্ধান্ত না মানার কারণে তাদেরকে বহিষ্কারের সুপারিশ করা হয়েছে। এখন কেন্দ্রীয় বিএনপি সিদ্ধান্ত নেবে।

সোনালী/জেআর