ঢাকা | এপ্রিল ১৬, ২০২৪ - ১:৩৬ পূর্বাহ্ন

উন্নত দেশগুলোকে মুজিব জলবায়ু সমৃদ্ধি পরিকল্পনায় বিনিয়োগের আহবান

  • আপডেট: Thursday, May 18, 2023 - 5:32 pm

অনলাইন ডেস্ক: গ্রুপ সেভেনভুক্তসহ (জি-৭) উন্নত দেশগুলোকে মুজিব জলবায়ু সমৃদ্ধি পরিকল্পনায় বিনিয়োগের আহবান জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) রাজশাহী নগরীর অলকার মোড়ে বৈদেশিক দেনা বিষয়ক কর্মজোট (বিডাব্লুজিইডি), ক্লিন এবং পরিবর্তনের উদ্যোগে আয়োজিত এক মানববন্ধনে বক্তারা এই আহ্বান জানান।

মানববন্ধনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তারা বলেন, জাপানের হিরোশিমায় ৩৯ তম জি-৭ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৯ থেকে ২১ মে।

বিশ্বের সাতটি বৃহত্তম উন্নত অর্থনীতির দেশ -কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, যুক্তরাজ্য, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও জাপান ২০২১ সালের শেষ নাগাদ কার্বন নির্গমনকারী কয়লা প্রকল্পে অর্থায়ন বন্ধ করতে এবং প্যারিস চুক্তির ভিত্তিতে ২০৫০ সালের মধ্যে কার্বন নির্গমন শূন্যে নামিয়ে আনার লক্ষ্য পূরণের জন্য সমস্ত জীবাশ্ম জ্বালানির বিনিয়োগ বন্ধ করতে সম্মত হয়েছিলেন।

কিন্তু জাপান সরকার ও জাপানের প্রতিষ্ঠান জাইকা উন্নত প্রযুক্তির নামে এ বিনিয়োগ অব্যাহত রেখেছে। একই সাথে মুজিব জলবায়ু সমৃদ্ধি পরিকল্পনায় শিল্প উন্নত দেশগুলোকে বিনিয়োগের আহ্বান জানানো হয়।

বক্তারা বলেন, জাপানসহ পৃথিবীর উন্নতদেশগুলো জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগ করে আমাদের মত দরিদ্র দেশের কাঁধে ঋণের বোঝা চাপিয়ে দিচ্ছে। ফলে বাড়ছে ক্যাপাসিটি চার্জ বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোকে ২০০৭-০৮ থেকে ২০২১-২২ অর্থবছর পর্যন্ত ১৩২৬৬৮ দশমিক ২০ কোটি টাকা (১৬ বিলিয়ন ডলার) ক্যাপাসিটি চার্জ (সক্ষমতা পারিতোষিক) ‍দিতে হয়েছে। ২০২২-২৩ অর্থবছরের সক্ষমতা পারিতোষিকের পরিমাণ হবে প্রায় ২৩ হাজার ০০০ কোটি টাকা (২.১২ বিলিয়ন ডলার)।

ইনস্টিটিউট অব এনার্জি ইকোনমিক্স, জাপান (আইইইজে) বর্তমানে জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির (জাইকা) সহায়তায় বাংলাদেশের জন্য ইন্টিগ্রেটেড এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ার মাস্টার প্ল্যান (আইপিএমপি) প্রণয়ন করছে।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন পরিবর্তন পরিচালক রাশেদ রিপন, সচেতনের সমন্বয়কারী মাহামুদউন নবী পলাশ এবং মহিলা পরিষদ জেলা সাধারণ সম্পাদক অঞ্জনা সরকার।

সোনালী/জেআর