ঢাকা | এপ্রিল ২১, ২০২৪ - ৮:২৯ পূর্বাহ্ন

রাজশাহীতে অপহরণের পর কিশোরীকে ধর্ষণ, আসামি গ্রেপ্তার

  • আপডেট: Tuesday, May 16, 2023 - 6:32 pm

অনলাইন ডেস্ক: রাজশাহীতে শারীরিক প্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারের পর মঙ্গলবার (১৬ মে) দুপুরে পবা থানা পুলিশের পক্ষ থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার আসামির নাম নাজিম আলী (৪০)। তিনি রাজশাহীর পবা থানার চৌবাড়িয়া পশ্চিমপাড়ার আব্দুল মান্নানের ছেলে।

রাজশাহীর পবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোবারক পারভেজ জানান, চৌবাড়িয়া পশ্চিমপাড়ার এসএসসি পরীক্ষার্থী এক শারীরিক প্রতিবন্ধী তরুণী গত ১৪ মে ভোরে নওহাটায় প্রাইভেট পড়ার জন্য যায়।

প্রাইভেট পড়া শেষে বাড়ি ফিরে না আসলে তার বাবা-মা আশপাশ খোঁজাখুঁজি করেন। কিন্তু কোথাও না পেয়ে তারা ওই রাতেই পবা থানায় একটি নিখোঁজের সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

পর দিন ১৫ মে সকালে স্থানীয় ভ্যানচালক জেকের আলী (৫৫) ওই কিশোরীকে চৌবাড়িয়া এলাকায় কান্নারত অবস্থায় দেখে তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌঁছে দেন। বাড়িতে ফিরে শরীরিক প্রতিবন্ধী কিশোরী তার বাবা-মাকে জানায়, প্রাইভেট শেষে দুয়ারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে বাড়ি ফেরার জন্য অপেক্ষা করছিল ওই কিশোরী।

এ সময় নাজিম তাকে অপহরণ করে। পরে তাকে বিভিন্ন স্থান ঘুরিয়ে আবারও চৌবাড়িয়া এলাকায় নিয়ে যায়। সেখানে ভুট্টা ক্ষেতের ভেতরে নিয়ে ধর্ষণ করে।

ধর্ষণের ফলে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ভোরের দিকে ভু্ট্টা ক্ষেতে রেখেই নাজিম পালিয়ে যায়। প্রতিবন্ধী ওই কিশোরীর এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানায় মামলা হয়। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আসামি নাজিমকে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পবা থানার ওসি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার আসামি ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। তাই জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে আদালতের মাধ্যমে আজ মঙ্গলবার দুপুরে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সোনালী/জেআর