ঢাকা | এপ্রিল ২১, ২০২৪ - ৮:০১ পূর্বাহ্ন

দ্রুত কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই: বাদশা

  • আপডেট: Thursday, May 11, 2023 - 4:15 pm

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশকে উন্নত দেশে পরিণত করতে ও দেশে দ্রুত কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে যুগোপযোগী কারিগরি শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা এমপি।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজশাহীর ইউসেফ মোমেনা বখশ টেকনিক্যাল স্কুলে আয়োজিত বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

অনুষ্ঠানে রাজশাহী-২ আসনের এই সংসদ সদস্য বলেন, বর্তমান সময়ে মানসম্মত কারিগরি শিক্ষা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই শিক্ষাকে অর্থবহ করতে ব্যাপক সম্প্রসারণ এবং যুগোপযোগী করার উদ্যোগ নিতে হবে। ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভুলেশন বা চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের যুগে দেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে হলে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের উদ্ভাবনী শক্তির বিকাশ এবং প্রযুক্তির সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। তবেই দ্রুত গতিতে সৃষ্টি হবে ব্যাপক কর্মসংস্থান। এতে করে দারিদ্রতার হার যেমন কমবে, অপরদিকে বেকারত্ব নামক অভিশাপ থেকেও মুক্তি পাওয়া যাবে।

রাজশাহীর ইউসেফ মোমেনা বখশ টেকনিক্যাল স্কুলের সার্বিক উন্নয়নের আশ্বাস দিয়ে এমপি বাদশা বলেন, আমরা অত্যন্ত পরিকল্পনার সাথে রাজশাহীর সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে কাজ করছি। এর ফলশ্রুতিতে রাজশাহী নগরী বাস্তবেই শিক্ষা নগরীতে পরিণত হয়েছে। এক্ষেত্রে ইউসেফ মোমেনা বখশ টেকনিক্যাল স্কুলেরও পিছিয়ে থাকার সুযোগ নেই।

কারিগরি এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে ও এখানে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের দক্ষ কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলতে আমার পক্ষ থেকে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা থাকবে। আমি দ্রুত শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাথে আলোচনা করে এই স্কুলের সার্বিক উন্নয়নে উদ্যোগ নেয়ার জন্য আহ্বান জানাবো।

ইউসেফ মোমেনা বখশ টেকনিক্যাল স্কুলের প্রধান শিক্ষক আবদুল্লাহ আল কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র-২ ও ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, ২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, উইমেন এন্ট্রিপ্রিনার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের রাজশাহী শাখার সভাপতি ও ইউসেফ ইউসেফ রাজশাহীর নিয়োগ কর্তা কমিটির চেয়ারপারসন আঞ্জুমান আরা পারভীন। এ সময় স্কুলের অন্যান্য শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ স্থানীয় এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সোনালী/জেআর