ঢাকা | এপ্রিল ১৪, ২০২৪ - ৮:০৯ অপরাহ্ন

বিবি হিন্দু অ্যাকাডেমির বেদখলকৃত সম্পত্তি পুনরুদ্ধারে চেষ্টা চালাবেন বাদশা

  • আপডেট: Wednesday, May 10, 2023 - 3:00 pm

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী মহানগরীর সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে উন্নয়নের আওতায় এনে ঢেলে সাজিয়েছেন রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা। এখানকার একাধিক ঐহিত্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন আইনি ও অন্যান্য জটিলতা নিরসনে তার রয়েছে বিশেষ ভূমিকা।

এবার তিনি রাজশাহীর অন্যতম ঐহিত্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভোলানাথ বিশ্বেশ্বর হিন্দু অ্যাকাডেমির বেদখলকৃত নিজস্ব সম্পত্তি পুনরুদ্ধারের জন্য বিশেষ চেষ্টা চালাবেন বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এহিত্যবাহী এ প্রতিষ্ঠানটির বেদখলকৃত সম্পত্তি ফেরাতে তিনি বিশেষভাবে চেষ্টা চালাবেন।

বুধবার সকালে বিবি হিন্দু অ্যাকাডেমির ক্রীড়া বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত বার্ষিক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান। এর আগে সাংসদ বাদশাসহ আগত অতিথিদের স্কুলের পক্ষ থেকে বিশেষ অভ্যর্থনা জানানো হয়। পরে স্কুল প্রাঙ্গনেই বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

অনুষ্ঠানে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সিনিয়র সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, শহরের মধ্যে বিবি হিন্দু অ্যাকাডেমির বিশেষ সুনাম আছে। উন্নয়নের প্রশ্নে আমরা সবসময়ই আন্তরিক চেষ্টা করি। তবে কোনো চেষ্টা সফল হয়, কোনটা হয় না। কিন্তু এই স্কুলের জন্য করা সকল সব চেষ্টাই যেন সফল হয়, সেই প্রত্যাশাই করি। আমি শিক্ষা মন্ত্রাণলয়কে অবহিত করবো, তারা যেন এ স্কুলটির উন্নয়নে থোক বরাদ্দ প্রদান করেন।

তিনি বলেন, আমরা জানি- ভোলানাথ বিশ্বেশ্বর হিন্দু অ্যাকাডেমির লেখাপড়ার মান অনেক ভালো। অনেক গোছানো ও পরিপাটি একটি স্কুল এটি। যতবার এখানে আসি, আনন্দিত বোধ করি। এখানে অনেক গুণি মানুষ অধ্যায়ন করেছেন। আমরা এও জানি, এই স্কুলের কিছু সম্পত্তি বেদখল হয়ে আছে। এখন আইনি লড়াই চলছে। ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠানটির বেদখলকৃত সম্পত্তি উদ্ধার করতে আপনাদের নিয়ে আমি বিশেষ চেষ্টা চালাবো।

টানা তিন বার নির্বাচিত এই সংসদ সদস্য আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতায় রাজশাহীতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনেক উন্নয়ন হয়েছে। ঐতিহ্যবাহী বিবি হিন্দু অ্যাকাডেমিও এক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই। এই স্কুলটিরও অতিতের চেহারা পাল্টে গেছে। আসন সংখ্যা বেড়েছে, অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাও বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কিছু দাবি-দাওয়া এসেছে। সেসব বাস্তবায়নেও আমার পক্ষ থেকে সর্বাত্মক চেষ্টা থাকবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রাজশাহীস্থ ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার মনোজ কুমার। তিনি বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক দিন-দিন গাঢ় হচ্ছে। বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক ভাইয়ের মতো। এখানে মাননীয় সংসদ সদস্য আছেন, তাকে নিয়ে এই স্কুলের উন্নয়নের জন্য আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। আমরা সবসময় আপনাদের পাশে আছি, সাথে আছি।

ভোলানাথ বিশ্বেশ্বর হিন্দু অ্যাকাডেমির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আইনজীবী জগদীশ চন্দ্র ঘোষের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, প্রধান শিক্ষক রাজেন্দ্রনাথ সরকার। আরো বক্তব্য দেন, রাসিকের ২২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল হামিদ সরকার টেকন। এসময় স্থানীয় এলাকার গণমান্য ব্যক্তিবর্গসহ প্রতিষ্ঠানটির সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

সোনালী/জগদীশ রবিদাস