ঢাকা | জুন ১৫, ২০২৪ - ১০:৪০ পূর্বাহ্ন

ঝুঁকিপূর্ণ মার্কেট থেকে ব্যবসায়ীদের সরে আসার আহ্বান

  • আপডেট: Wednesday, April 5, 2023 - 6:15 pm

অনলাইন ডেস্ক: যেসব মার্কেটকে ফায়ার সার্ভিস ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করেছে সেগুলো এখনই ছেড়ে দিতে ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, ‘পুড়ে যাওয়া বঙ্গবাজারে পুনর্বাসনের ক্ষেত্রে ‘কাঁচা স্থাপনা না থাকাই উচিৎ।” আজ বুধবার বিকেলে বঙ্গবাজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে দুপুরে ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মাইন উদ্দিন বলেন, ঢাকায় ঝুঁকিপূর্ণ মার্কেট ও বিপণি বিতানগুলোয় জরিপ চালাতে মাঠে নামছে ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ। তিনি বলেছেন, ‘আপাতদৃষ্টিতে রাজধানী সুপার মার্কেট, গাউছিয়াসহ বেশ কিছু মার্কেটকে ঝুঁকিপূর্ণ মনে হচ্ছে। বৃহস্পতিবার থেকে এসব মার্কেটে জরিপ শুরু হবে। জরিপের ফলাফল তাৎক্ষণিকভাবেই জানানো হবে। ২০১৯ সালে বঙ্গবাজার মার্কেট ঝুঁকিপূর্ণ বলে ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে নোটিস টাঙিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তারা সতর্ক হয়নি।’

গতকাল মঙ্গলবার সকালের ভয়বাহ আগুনে বঙ্গবাজার মার্কেটের পাশের মহানগর মার্কেট, আদর্শ মার্কেট ও গুলিস্তান মার্কেট পুরোপুরি ভষ্মীভূত হয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পাশের এনেক্সকো টাওয়ার এবং আরও কিছু ভবন।

বুধবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি আপনাদের মাধ্যমে জানাতে চাই, ফায়ার সার্ভিস যেগুলোকে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনগুলো হিসেবে চিহ্নিত করেছে সেগুলো যেন ব্যবসায়ীরা ইমিডিয়েটলি পরিত্যাগ করেন। ভবিষ্যতে যেন আর এরকম দুর্ঘটনা না হয় সেজন্য আমি আপনাদের (ব্যবসায়ীদের) অনুরোধ করব আপনারা ফায়ার সার্ভিসের নির্দেশিকাগুলো মেনে চলবেন। সেই সঙ্গে ঝুঁকিপূর্ণ যদি আর কোনো মার্কেট থাকে ফায়ার সার্ভিস সেটাও নির্দেশনা দেবে। ব্যবসায়ীদেরও এসব বিষয়ে চিন্তা করতে হবে।’

অগ্নিনির্বাপনের সব রকম ব্যবস্থা না থাকায় কোনো মার্কেট ঝুঁকিপূর্ণ হলে তিনি সেখান থেকে ব্যবসা ধীরে ধীরে সরিয়ে নিতেও ব্যবসায়ীদের অনুরোধ করেন।

কিছু কিছু ভবনকে ঢাকা শহরে ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করা হয়েছে-সেগুলো অপসারণে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ব্যবস্থা নেবে কি না জানতে চাইলে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘এটা কিন্তু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাজ না। এটা রাজউক ও সিটি করপোরেশনের কাজ। এটাও (বঙ্গবাজার) ছিল তার মধ্যে। অন্যগুলোর কথা আমি বলতে চাই এই সমস্ত ঝুঁকিপূর্ণ মার্কেট যেন আমরা পরিত্যাগ করি।’

সোনালী/জেআর