ঢাকা | জুন ২২, ২০২৪ - ১২:০৩ অপরাহ্ন

মায়ের চেয়ে ১৪ বছরের বড় ছেলে!

  • আপডেট: Monday, April 3, 2023 - 5:59 pm

অনলাইন ডেস্ক: বাবার চেয়ে চার বছর আর মায়ের চেয়ে ১৪ বছরের বড় ছেলে। শুনতে অবিশ্বাস্য মনে হলেও জন্মনিবন্ধনের বয়সে এমন ভুল তথ্য লিপিবদ্ধ হওয়ায় বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে কলেজছাত্র আব্দুস সাত্তারকে। এ জন্য তিনি ভোটার হতে পারছেন না।

পাবনার সাঁথিয়ার করমজা ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের পুন্ডুরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে জন্ম নিবন্ধনের তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন করেও সমাধান পাচ্ছেন না আব্দুস সাত্তার। ফলে ভবিষ্যৎ নিয়ে বেশ দুশ্চিন্তায় পড়েছেন তিনি।

জাতীয় পরিচয়পত্রে সাত্তারের বাবা আজমত আলীর জন্ম তারিখ ১৯৫৭ সালের ৮ জানুয়ারি এবং মায়ের ৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৭। কিন্তু জন্মনিবন্ধনে তাঁর জন্ম তারিখ ১৯৫২ সালের ৫ অক্টোবর। সে হিসাবে বাবার চেয়ে চার বছর এবং মায়ের চেয়ে ১৪ বছরের বড়।

প্রকৃতপক্ষে আব্দুস সাত্তারের জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি সমমানের শিক্ষাসনদে জন্ম তারিখ রয়েছে ১৬ ডিসেম্বর ২০০৪। সে হিসাবে তাঁর বর্তমান বয়স ১৮ বছর। কিন্তু জন্ম নিবন্ধনের তথ্য অনুযায়ী তাঁর বয়স ৭০ বছর!

আব্দুস সাত্তার বলেন, গত বছর তথ্য সংগ্রহকারীরা এলাকায় হালনাগাদ করতে এলে ভোটার হতে কাগজপত্র জমা দিই। এরপর ছবি তোলার জন্য ডাকা হয়। ছবি তুলতে গেলে বিষয়টি ধরা পড়ে। বয়স সংশোধন করে আবার আবেদন করতে বলা হয়। এই ভুল সংশোধন করতে গিয়ে নানা বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দেওয়ার পরও বয়সটা কোনোভাবেই সংশোধন হচ্ছে না।

করমজা ইউপি সচিব আব্দুল মতিন জানান, জন্মনিবন্ধনে এ রকম জটিলতা বহু মানুষের রয়েছে। সংশোধনও করা হয়েছে। তবে বর্তমানে সার্ভার থেকে বয়স সংশোধনের অপশনটাই তুলে দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ হোসেন বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিল না। ছেলেটি কাগজপত্রসহ যোগাযোগ করলে সহযোগিতা করা হবে।

সোনালী/জেআর