ঢাকা | জুন ২৫, ২০২৪ - ৫:৪১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

আদানির বিদ্যুৎ নিয়ে অনিশ্চয়তা নেই: প্রতিমন্ত্রী

  • আপডেট: Sunday, February 5, 2023 - 4:52 pm

অনলাইন ডেস্ক: ভারতের বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে আমদানিকৃত বিদ্যুৎ মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে দেশে আসবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। একই সঙ্গে আদানি গ্রুপের সঙ্গে বিদ্যুৎ আসা নিয়ে কোনো অনিশ্চয়তা নেই বলেও জানান তিনি।

রোববার (৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন নসরুল হামিদ।

আমদানিকৃত বিদ্যুৎ পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে, এ বিষয়ে মতামত জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমার মনে হয় এটা খুবই বাজে কথা। আদানির বিদ্যুৎকেন্দ্র আমরা নিজেরা দেখতে গিয়েছিলাম। আমাদের টিম গিয়েছিল, সেখানে আমি ছিলাম। তারা বহু আগেই বিদ্যুৎ দেওয়ার কথা বলেছিল আমাদের। আমরা যেহেতু ফেব্রুয়ারির শেষে একটা তারিখ নির্ধারণ করেছি, সেদিনই আমাদের সিওডি (কমার্শিয়াল অপারেশন ডেট) হবে। সিওডি হওয়া মানেই আমরা আশা করছি, মার্চের প্রথম সপ্তাহে বিদ্যুৎ পাব।

তিনি বলেন, আমরা নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ দেওয়ার চেষ্টা করছি। যার জন‌্য গ‌্যাসও আমরা বৃদ্ধি করছি। গ‌্যাসের দামটা কিছুটা স্থিতিশীল। আমরা শিল্পে গ‌্যাস নিরবচ্ছিন্ন রাখার চেষ্টা করছি, বিদ্যুতেও গ‌্যাসের পরিমাণ বাড়ানো, যাতে ফেব্রুয়ারির শেষ থেকে মার্চসহ বিদ্যুতের অবস্থা ভালো থাকে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের যে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র আছে, সেগুলো একটার পর একটা আসা আরম্ভ হবে। আমরা পায়রা তো পাচ্ছি, পুরোটাই পাচ্ছি আমরা। আমরা আশা করছি রামপালও চলে আসবে। আমরা আশা করছি, বরিশালের ৩০০ মোগাওয়াট বিদ্যুকেন্দ্র চলে আসবে। আমরা আশা করছি, এসএস পাওয়ার সেটা চলে আসবে। আদানির বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে যে বিদ্যুৎ আমরা আনবো, সেটা আমরা আশা করছি আগামী মাসের (মার্চ) প্রথম সপ্তাহ থেকে বিদ্যুৎ পাব।

সোনালী/জেআর