ঢাকা | জুন ১৮, ২০২৪ - ৫:৪১ অপরাহ্ন

পঞ্চগড়ে তাপমাত্রা বাড়লেও কমেনি শীতের তীব্রতা

  • আপডেট: Saturday, February 4, 2023 - 3:59 pm

অনলাইন ডেস্ক: পঞ্চগড়ে কদিন ধরে সর্বনিম্ন তাপামাত্রা বেড়েছে। সাথে ঘন কুয়াশা আর শীতের তীব্রতাও বেড়েছে। শনিবারের সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করেছে তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিস। এদিন সকাল ৯ টা পর্যন্ত ঘন কুয়াশায় ঢেকে ছিল গোটা এলাকা। শুক্রবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অফিস ও স্থানীয়রা জানায়, পঞ্চগড়ে এক সপ্তাহ ধরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার সাথে শীতের তীব্রতাও কমতে থাকে। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ থেকে ১২ এর মধ্যে উঠানামা করে। পাশাপাশি সর্বোচ্চ তাপমাত্রাও বৃদ্ধি পেয়ে দিনে বেশ গরম অনুভূত হয়। শুক্রবার দিনের তাপমাত্রা ছিল ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কিন্তু গত দুইদিন ধরে আবারও শুরু হয়েছে ঘন কুয়াশা।

শুক্রবার রাত বাড়ার সাথে সাথে ঘন কুয়াশায় ঢেকে যায় বিভিন্ন এলাকা। রাতভর বৃষ্টির মত কুয়াশা ঝড়তে থাকে। শনিবার সকাল ৯ টা পর্যন্ত ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন ছিল পঞ্চগড়। সাথে হিমশীতল বাতাসের কারণে কনকনে শীত অনুভূত হয়। তবে সকাল ৯ পর সূর্যের দেখা পাওয়া যায়। আর বেলা বাড়া সাথে কুয়াশাও কেটে যায়।

উপজেলা সদরের চারমাইল এলাকার কৃষি শ্রমিক ফয়জুল হক বলেন, কয়েক দিন ধরে মনে হচ্ছিল শীত বুঝি শেষ হয়ে গেল। কিন্তু দুইদিন ধরে আবারও কনকনে শীত লাগছে। আমি প্রতিদিন ভোরে জমিতে কাজ শুরু করি। আজকে সকাল ৯ টা পর্যন্ত অস্বাভাবিক কুয়াশা ছিল। ১০ হাত দূরেও কিছু দেখা যাচ্ছিল না। তবে ৯ টার পর থেকে সূর্যের আলো বৃদ্ধি পেতে থাকে। ঘন কুয়াশা এবং শীতের তীব্রতাও কমে যায়।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রাসেল শাহ বলেন, শনিবার সকালে সর্বনিম্ন ১১ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। শুক্রবার সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে দুইদিন ধরে রাতে ঘন কুয়াশা শুরু হয় এবং পরদিন সকাল ৮ টা ৯ টা পর্যন্ত ঘন কুয়াশায় ঢেকে থাকে এলাকা। আগামী দুয়েক দিনে শীত আরও কমে যেতে পারে।

সোনালী/জেআর