ঢাকা | জুন ১৫, ২০২৪ - ১০:৫০ অপরাহ্ন

জামানত হারালেন হিরো আলমসহ ১৪ প্রার্থী

  • আপডেট: Thursday, February 2, 2023 - 5:45 pm

অনলাইন ডেস্ক: জাতীয় সংসদের উপ-নির্বাচনে বগুড়ার দুটি আসনে জাতীয় পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) ও বহুল আলোচিত হিরো আলমসহ মোট ১৪ প্রার্থী জামানত হারিয়েছেন।

নির্বাচনী আইনে প্রদত্ত ভোটের আটভাগের একভাগ ভোট না পাওয়ায় তারা জামানত হারান। এর মধ্যে বগুড়া-৬ আসনে সবচেয়ে বেশি ৯ জন এবং বগুড়া-৪ আসনে পাঁচজন জামানত হারিয়েছেন।

বগুড়া-৬ (সদর) আসনে প্রদত্ত ৯১ হাজার ৭৪২ ভোটের মধ্যে ১১ হাজার ৪৬৮ না পাওয়ায় জামানত হারিয়েছেন ৯ প্রার্থী। এ আসনে ১১ প্রার্থীর মধ্যে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের রাগেবুল আহসান রিপু। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মান্নান আকন্দ।

জামানত হারানো প্রার্থীরা হলেন জাতীয় পার্টির প্রার্থীর সাবেক হুইপ নূরুল ইসলাম ওমর (প্রাপ্ত ভোট ৬৯৯৫), আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম (৫২৭৪), সাবেক বিএনপি নেতা সরকার বাদল (২৮১১), রাকিব হাসান (১৪৪৯), জাসদের ইমদাদুল হক ইমদাদ (১৩৪০), বীর মুক্তিযোদ্ধা মাছুদার রহমান হেলাল (১৬১৮), খেলাফত আন্দোলনের নজরুল ইসলাম (৪৬৮), জাকের পার্টির ফয়সাল বিন শফিক (৪১৭) ও গণফ্রন্টের আফজাল হোসেন (১৭০)।

বগুড়া-৪ (কাহালু ও নন্দীগ্রাম) আসনে ভোট পড়েছে ৭৮ হাজার ৫২৪টি। সে অনুযায়ী জামানত ফিরে পেতে প্রার্থীদের প্রয়োজন ছিল ন্যূনতম ৯ হাজার ৮১৫ ভোট। কিন্তু ওই আসনে মোট ৯ জন প্রার্থীর মধ্যে পাঁচজনই সেই ভোট পাননি। ফলে তাদের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।

তারা হলেন জাতীয় পার্টির শাহীন মোস্তফা কামাল ফারুক (৬৪৪৬), জাকের পার্টির আব্দুর রশিদ সরকার (৪০৬৪), বাংলাদেশ কংগ্রেসের তাজ উদ্দিন মন্ডল (৩৫৩৭), গোলাম মোস্তফা (২৩৯০) এবং ইলিয়াস আলী (৮৪৮)।

বগুড়া জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহমুদ হাসান বলেন, নিয়ম অনুযায়ী কোনো প্রার্থীকে জামানত রক্ষা করতে হলে মোট বৈধ ভোটের (কাস্টিং) আটভাগের একভাগ থেকে অন্তত একটি ভোট বেশি পেতে হবে। যেসব প্রার্থীরা এ পরিমাণ ভোট পাননি তাদের জামানত বাজেয়াপ্ত করা হবে।

তিনি আরও বলেন, যারা জামানত হারিয়েছেন তাদের তালিকা করা হচ্ছে।

সোনালী/জেআর