ঢাকা | জুন ১৫, ২০২৪ - ১১:৩৯ অপরাহ্ন

পাঠ্যবই নিয়ে গুজবে লিপ্ত রাষ্ট্রবিরোধী অপশক্তি: শিক্ষামন্ত্রী

  • আপডেট: Monday, January 30, 2023 - 7:22 pm

স্টাফ রিপোর্টার: রাষ্ট্রবিরোধী অপশক্তি নতুন শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যবই নিয়ে গুজব ছড়িয়ে দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করছে বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। তিনি বলেছেন, পাঠ্যপুস্তকে ভুল থাকলে সব যৌক্তিক ভুল সংশোধন করা হবে; তবে এসব নিয়ে মিথ্যাচারে লিপ্ত হলে তা কখনোই মেনে নেওয়া হবে না।

সোমবার দুপুরে শিক্ষা ব্যবস্থাপনা ও শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়ন শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। রাজশাহী নগরের শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান মিলনায়তনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ মনিটরিং অ্যান্ড ইভালুয়েশন দফতর এ কর্মশালার আয়োজন করে। এতে রাজশাহী বিভাগের বিভিন্ন কলেজের অধ্যক্ষরা অংশগ্রহণ করেন।

দীপু মনি বলেন, মানুষ বানর থেকে এসেছে- নতুন পাঠ্যবইয়ের কোথাও এমনটি লেখা নেই। বইয়ে মানুষ আদিযুগে দেখতে কেমন ছিল, এখন দেখতে কেমন; সে বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে। কোনো ইস্যু না পেয়ে রাষ্ট্রবিরোধী শক্তি এখন পাঠ্যপুস্তকের ওপর ভর করার অপচেষ্টা করছে। তারা বলছে, নতুন বইয়ে ইসলাম নেই, যা আছে ওটা ইসলামবিরোধী। আমরা বলতে চাই, আওয়ামী লীগ সরকার কখনো ইসলামের বিরুদ্ধে কিছু করেনি, করবেও না।

মন্ত্রী আরো বলেন, পাঠ্যবইয়ে যেসব ভুল এখন পর্যন্ত পাওয়া গেছে, তা সংশোধন করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠানো হয়েছে। বাকি বইগুলো সবার জন্য উন্মুক্ত আছে। সকলে পড়ুন, মতামত দিন। দায়িত্ব নিয়ে বলছি, যত গঠনমূলক সমালোচনা ও পরামর্শ রয়েছে- আমরা খোলা মনে সব পরামর্শ বিবেচনা করব। যেখানে যৌক্তিক হবে, সেখানে পরিমার্জন, পরিশোধন, পরিশীলন অবশ্যই করা হবে।

কোন কথায় কান দেওয়ার আগে সত্যতা যাচাইয়ের আহ্বান জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আপনারা গুজবে কান দেবেন না। কোন কথা শুনলে আগে তার সত্যতা যাচাই করবেন। চিলে কান নিয়েছে বলে চিলের পেছনে না দৌঁড়ে নিজের কানে হাত দিয়ে দেখুন; কান নিজের কাছে আছে কিনা। দেশের মানুষ সুখে–শান্তিতে বসবাস করছে। কিন্তু দেশের স্থিতিশীল পরিস্থিতিকে অস্থিতিশীল করতে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি এসব ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে।

কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও রাজশাহী-২ (মহানগর) আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলে হোসেন বাদশা। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষার পাশাপাশি আরো অনেক কিছুর প্রয়োজন রয়েছে। যেমন, খেলাধুলা, বিতর্ক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ইত্যাদি। এসবের মধ্যে অনেক জ্ঞানভিত্তিক বিষয় থাকে, যা আমাদের শিক্ষার্থীদের অনেক ভুল ধারনা থেকে বেরিয়ে আসতে সহায়তা করবে। দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিষয়টির ওপর বিশেষ গুরুত্বারোপ করতে মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগী হওয়া আবশ্যক।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডা. মশিউর রহমান। এসময় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার, রবিন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শাহ আজম, শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডা. গোলাম রবিসহ রাজশাহী বিভাগীয় অঞ্চলের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

সোনালী/জগদীশ রবিদাস