ঢাকা | জুন ১৩, ২০২৪ - ৩:৪৩ অপরাহ্ন

শেখ হাসিনাকে বরণের অপেক্ষায় রাজশাহীবাসী

  • আপডেট: Sunday, January 22, 2023 - 6:39 pm

স্টাফ রিপোর্টার: আগামী ২৯ জানুয়ারি রাজশাহী আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার এ আগমনকে ঘিরে সাজ সাজ রব পড়েছে পদ্মা পাড়ের নগরীতে। আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে বরণ করতে ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। জনসভাস্থল থেকে শুরু করে আশেপাশের এলাকা ব্যানার, ফেস্টুন, প্লেকার্ডে ছেয়ে গেছে।

শহরের বিভিন্ন রাস্তাঘাট পরিষ্কার পরিচ্ছন্নসহ রং করা হয়েছে বিভিন্ন স্থাপনা। রাস্তার জেব্রা ক্রসিং ও ডিভাইডার গুলোতে রং করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়েছে জনসভার স্থলের চার পাশের প্রায় ১০ থেকে ১২ কিলিমিটার এলাকা জুড়ে ছেয়ে গেছে তোরণ, ব্যানার, ফেস্টুনে। রাজশাহীসহ আশপাশের জেলাগুলোতেও শাটানো হয়েছে পোস্টার। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়ে এবং জনসভা সফলের আহবান জানিয়েছে প্রচার চালানো হচ্ছে ফেসবুকেও। ফলে প্রধানমন্ত্রীর আগমন কেন্দ্র করে রাজশাহীতে এখন সাজসাজ রব।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনকে কেন্দ্র করে রাজশাহী জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। দলের নেতাকর্মীরা প্রতিদিনই লিফলেট হাতে রাস্তায় নামছেন। কখনো হচ্ছে মিছিল আবার কখনো পথসভার মতো কর্মসূচি। প্রধানমন্ত্রীর জনসভা সফল করতে শুধু নগর বা জেলা নয়; পুরো রাজশাহী বিভাগজুড়েই ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে দলটির পক্ষ থেকে।

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার গণমাধ্যমকে বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যাকে বরণ করতে রাজশাহীবাসী অধীর অপেক্ষায় আছেন। প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে ঘিরে স্থানীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে উচ্ছ্বাস-উদ্দীপনা বিরাজ করছে। রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফল করতে চলতি মাসের ১ তারিখ থেকেই আমরা প্রস্তুতি শুরু করেছি। আশা করছি, ২৯ তারিখের জনসভায় লাখ লাখ মানুষের আগমনে মুখরিত হয়ে উঠবে মাদ্রাসা ময়দান।

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) রফিকুল আলম গণমাধ্যমকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনকে সামনে রেখে হেড কোয়ার্টারের পরিকল্পনা অনুযায়ী আইন-শৃঙ্খলাবাহিনী তাদের কার্যক্রম চালাচ্ছে। যে কোনো ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে আগে থেকেই সক্রিয় রয়েছে পুলিশ।

আওয়ামী লীগের ২২তম জাতীয় সম্মেলনের পর এটিই প্রথম নির্বাচনী সমাবেশ। এর আগে ২০১৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি রাজশাহীর এই ঐতিহাসিক মাদ্রাসা ময়দানেই জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শেখ হাসিনা উপস্থিত জনতার কাছে আওয়ামী লীগের জন্য ভোট চেয়েছিলেন।

এছাড়াও ২০১৩ সালের ৫ সেপ্টেম্বর রাজশাহীর বাগমারায় ও ২০১৪ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি চারঘাটে আওয়ামী লীগের জনসভায় যোগ দেন তিনি।  ২০১৭ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর রাজশাহীর পবার হরিয়ানের বিশাল জনসভায় হাজির হয়েছিলেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। এরপর গত ২৬ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী গণভবনে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সভায় রাজশাহীতে এই সমাবেশের সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা বলেন।

সোনালী/জগদীশ রবিদাস