ঢাকা | জুন ২১, ২০২৪ - ১০:৩৫ অপরাহ্ন

আ. লীগ কচুপাতার শিশির বিন্দু নয় যে টোকা দিলেই পড়বে: কাদের

  • আপডেট: Sunday, January 15, 2023 - 4:22 pm

অনলাইন ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগ ভোরের কচুপাতার শিশির বিন্দু নয় যে টোকা দিলেই পড়ে যাবে। আওয়ামী লীগের ভীত এতটা দুর্বল নয়। আওয়ামী লীগের সম্পর্ক এদেশের মাটি ও মানুষের সঙ্গে।

রোববার নীলফামারীর সৈয়দপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে নীলফামারী ও রংপুর বিভাগের অন্যান্য জেলার শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে অন্ধকার থেকে আলোর পথে নিয়ে এসেছেন। শেখ হাসিনাই বাবার পাশে মায়ের নামের ব্যবহার শুরু করেছেন। তিনি মায়েদের সম্মান দিয়েছেন। তিনি সব সময় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। এ অঞ্চলের জন্য ৯ লাখ শীতবস্ত্র দিয়েছেন তিনি । আজ রংপুর বিভাগের ৮টি জেলায় ২৭ হাজার শীতবস্ত্র বিতরণ করা হচ্ছে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, উত্তরাঞ্চলে এখন আর মঙ্গা নেই। প্রধানমন্ত্রীর নেওয়া পলিসির কারণে মঙ্গা আজ জাদুঘরে। উত্তরাঞ্চলের মানুষ ভাগ্যবান। এলেঙ্গা থেকে বগুড়া হয়ে রংপুর পর্যন্ত সিক্স লেন হচ্ছে। ফোর লেন যাচ্ছে পঞ্চগড় পর্যন্ত।

এসময় নারীদের উন্নয়নে শেখ হাসিনা সরকারের নেওয়া বিধবা ভাতা, মাতৃত্বকাল ভাতাসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা প্রদানের চিত্র তুলে ধরেন সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী।

একই অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আওয়ামী লীগ মানুষকে কম্বল দিয়েছে, করোনার সময় বিনামূল্যে টিকা ও খাবার দিয়েছে। করোনার সময় বিএনপিকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। বিএনপি হলো শীতের পাখি। শুধুমাত্র সুসময়েই তাদের খুঁজে পাওয়া যায়।

সৈয়দপুরের অফিসার্স কলোনি, ফাইভ স্টার মাঠে নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের সহযোগিতায় জেলার শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

এ সময় রেলপথ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ড. এনামুর রহমান, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাক্তার রোকেয়া সুলতানা,সাবেক প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান, নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদসহ কেন্দ্রীয় ও রংপুর বিভাগের ৮ জেলার নেতা ও স্থানীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক কমিটির সম্পাদক আমিনুল ইসলাম।

সোনালী/জেআর