ঢাকা | জুন ২২, ২০২৪ - ৬:০১ অপরাহ্ন

বিজয় নগরে ১২ জোটের সমাবেশে উপস্থিত ২৪ জন: কাদের

  • আপডেট: Wednesday, January 11, 2023 - 5:00 pm

অনলাইন ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরবিহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপির আন্দোলন ভূয়া। আজকে খবর জানেন, পল্টনে মোটামুটি একটা সমাবেশ হয়েছে। ১২ দলীয় জোট দেখলাম বিজয় নগরে সমাবেশ করছে, সব মিলিয়ে ২৪ জন। সাত দলীয় জোট প্রেসক্লাবের সামনে চেয়ার পেতে বসে আছে, মঞ্চে ২০ জন সামনে সাংবাদিকসহ আরও ১৫ জন। ১টা পর্যন্ত ৩ দল উপস্থিত ছিল চার দল নেই। ৭ দলীয় ঐক্যজোট তার পর সমমনা ১২ দল বিএনপির সমমনারা দেখলাম। ওই এলাকাজুড়েই আছে।’

আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর গুলিস্তানের বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ব্যানারে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তারা বসে আছে ফুটপাতের উপর, মঞ্চ ও স্রোতা সেখানেই, সবাই ফুটপাত কেন্দ্রীক। তার পরে এলডিপি দেখলাম সেই দৃশ্যপট, কয়েকজন হাতে গোনা বসে আছে। ৫৪ দল আজকে একজন শেখ হাসিনার বিরেুদ্ধে। কী হবে? ঘোড়ার ডিম পাড়বে। ৫৪ টা ঘোড়ার ডিম পাড়বে, ৫৪টি ঘোড়ার ডিম পাড়বে ৫৪টি বিরোধী রাজনৈতিক দল। ভুয়া…ভুয়া… ভুয়া… এটা গরুর হাট।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘রাষ্ট্রকে মেরামত করবে? রাষ্ট্রকে আবার ক্ষমতা পেলে তারা ধ্বংস করবে। এই দেশের গণতন্ত্র বাঁচবে না, তারা ক্ষমতায় আসলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাঁচবে না। তারা ক্ষমতা্য় আসলে স্বাধীনতার আদর্শ বাঁচবে না। তারা ক্ষমতায় আসলে গণতন্ত্রের বস্ত্রহানি ঘটবে।এই অপশক্তি জঙ্গীবাদের পৃষ্টপোষক, সাম্প্রদায়িকতার পৃষ্টপোষক।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত দেশকে ধ্বংস করে। যারা দেশকে ধ্বংস করে তারা কিভাবে রাষ্ট্র মেরামত করবে? স্বাধীনতাবিরোধী জঙ্গিবাদী বিএনপি-জামায়াতের হাতে ক্ষমতা ছেড়ে দিতে পারি না। ওরা দেশকে ধ্বংস করে। বাংলাদেশের জনগন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ। কি দেখাবেন আপনারা? মুখে মিথ্যাচার আর বিষোদগার। আপনাদের নেই মেট্রোরেল, নেই পদ্মা সেতু, নেই বঙ্গবন্ধু টানেল, নেই উড়াল সেতু, নেই আন্ডারপাস, নেই এক দিনে শত সেতু, কে করেছে, শেখ হাসিনা করেছেন।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এবং উত্তর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা করছে। আমি কোনো কোনো অনলাইনে দেখলাম যে পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি দিয়েছে আওয়ামী লীগ। পাল্টাপাল্টি কেন? ১০ জানুয়ারি তো বিএনপির হৃদয়েও নেই, চেতনাতেও নেই। ১০ জানুয়ারি তারা করেনি।’

ওবায়দুল কাদের বিএনপির সমালোচনা করে বলেন, ‘১০ ডিসেম্বর তো এই নগরীতে বিজয় মিছিল হবে। ১০ জানুয়ারী তো এমনও কথা ছিল তারেক রহমান এসে নেতৃত্ব দেবেন। ১০ ডিসেম্বর এমনও কথা ছিল বেগম জিয়া জেল থেকে এসে বিজয় মিছিলের নেতৃত্ব দেবেন, সরকারের পতন অনিবার্য। কি হলো? ১০ ডিসেম্বর ভুয়া, ৩০ ডিসেম্বর ভুয়া।’

আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগও রাজধানীতে দুটি বড় সমাবেশ করেছে। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে যুবলীগ-ঢাকা মহানগর উত্তরের ব্যানারে বেলা ১১টায় রাজধানীর ফার্মগেটে এবং ঢাকা মহানগর দক্ষিণের ব্যানারে দুপুর ১২টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পৃথক সমাবেশ করে। দলের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন ছাত্রলীগ বেলা ১১টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত রাজধানীর শাহবাগ চত্বরে অবস্থান নিয়ে সমাবেশ করে।

সোনালী/জেআর