ঢাকা | জুলাই ২৪, ২০২৪ - ১১:১৬ পূর্বাহ্ন

প্রথম দিনই বিকল মেট্রোরেলের টিকিট মেশিন

  • আপডেট: Thursday, December 29, 2022 - 11:22 am

অনলাইন ডেস্ক: বুধবার উদ্বোধনের পর আজ বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) জনগণের জন্য চলাচল উন্মুক্ত হয়েছে স্বপ্নের মেট্রোরেলের। সকাল ৮টায় উত্তরা থেকে প্রথম ট্রেনটি ছেড়ে যায়।

মেট্রোর এ প্রকল্প জনগণ যে পছন্দ করছেন, তার প্রমাণ পাওয়া গেল প্রথম দিনই। কারণ, ইতোমধ্যে এ ট্রেনের টিকিট বিক্রির একটি মেশিন বিকল হয়ে গেছে।

মেশিনের স্ক্রিনে দেখা গেছে, ‘এই মেশিনটি কিছু সময়ের জন্য বিকল আছে। অনুগ্রহপূর্বক অন্য মেশিন ব্যবহার করার জন্য অনুরোধ করা হইল অথবা টিকিট অফিসে যোগাযোগ করুন’ লেখাটি।

উত্তরার দিয়াবাড়ি মেট্রোরেল ডিপো স্টেশনে সরেজমিনে এ চিত্র দেখা গেছে। টিকিট কাউন্টার থেকে যাত্রীদের লাইন ছাড়িয়ে গেছে রাস্তা পর্যন্ত।

দিয়াবাড়ি স্টেশন কর্তৃপক্ষ বলছে, মেট্রোরেলে সরাসরি যাত্রার প্রথম দিন সকাল থেকেই উৎসুক লোকজনের ভিড় ছিল। সময় বাড়ার সাথে সাথে ভিড় বাড়তে থাকে। যাত্রীদেরও ব্যাপক ভিড় লেগে যায়। টিকিট কাউন্টারগুলোয় দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে।

স্বয়ংক্রিয় মেশিনের সামনেও লাইন আছে। একসঙ্গে অনেক বেশি যাত্রী টিকিট কেনার কারণে মেশিনগুলো কিছু সময় পরপর হ্যাং হতে দেখা যায়। তারপরও যাত্রীদের চাপ ব্যাপক। চাপ সামলাতে তাদের এক প্রকার হিমশিম খেতে হচ্ছে।

দিয়াবাড়ি স্টেশনে টিকিট বিক্রির স্বয়ংক্রিয় মেশিন রয়েছে তিনটি। কিছু সময় পর পর মেশিনগুলো বন্ধ হয়ে যেতে দেখা গেছে। একবার বন্ধ হলে অন্তত পাঁচ মিনিট ধরে এগুলো বন্ধ থাকছে। এতে ব্যক্তিগতভাবে টিকিট কিনতে আসা যাত্রীদের ভোগান্তি হচ্ছে। তারপরও জনমনে খুশি লক্ষ্য করা গেছে।

যাত্রীরা বলছেন, কিছুটা সমস্যা হচ্ছে, হবে। এটা স্বাভাবিক। প্রথমদিনই যে সব কিছু টিপটপ থাকবে না নয়। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সব কিছু উন্নতি হবে।

স্টেশনের টিকিট বিক্রয় মেশিন (টিভিএম) কেন কাজ করছে না জানতে চাইলে স্টেশন কন্ট্রোলার মো. রনির সঙ্গে কথা হয়। তিনি বলেন, মেশিনে একটু সমস্যা দেখা দিয়েছে। আমরা রিকভারি করার চেষ্টা করছি। প্রথম বলেই একটু সমস্যা হচ্ছে। ঠিক হয়ে যাবে।

প্রথমদিন দিয়াবাড়ি স্টেশনে দায়িত্ব পালন করছেন রনি। তিনি আরও বলেন, কাউন্টারের পাশাপাশি মেশিন থেকেও অনেকে টিকিট নিচ্ছেন। এটি মূলক সার্ভারের মাধ্যমে কাজ করে। মাঝে মাঝে হ্যাং করে। এটা স্বাভাবিক। কিছুক্ষণের মধ্যে ঠিকও হয়ে যায়। আজ মানুষের চাপ বেশি। কাউন্টারেই হিমশিম খেতে হচ্ছে। মেশিনেও ক্ষণিকের জন্য সমস্যা করছে।

জানা গেছে, সকাল থেকে এ স্টেশনে যাত্রীদের ভিড় শুরু হয়। নিরাপত্তাকর্মীরা অল্প অল্প করে যাত্রীতের স্টেশনে প্রবেশ করতে দিচ্ছিলেন। বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজন ভোর থেকেই টিকিটের লাইনে দাঁড়াতে শুরু করেন। অনেকের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, জীবনে প্রথমবারের মতো মেট্রোরেলে চড়ছেন তারা। তাই অভিজ্ঞতা কেমন, সে অনুভূতি নিতে উত্তরা থেকে আগারগাঁও; আবার সেখান থেকে নিজের গন্তব্যে ফিরে এসেছেন তারা।

এতকিছু মধ্যে যাত্রীদের অভিযোগও আছে। তারা বলছেন, মেট্রো স্টেশনের দ্বিতীয় তলা ফুট ওভারব্রিজ হিসেবে ব্যবহারের কথা রয়েছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষ দিচ্ছে না। তবে, কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, প্রাথমিক পর্যায়ে ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহার করতে দেওয়া হচ্ছে না ঠিক। প্রথম দিন, অতিরিক্ত লোকজন হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। মূলত, স্টেশনের রক্ষণাবেক্ষণের লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সোনালী/জেআর