ঢাকা | জুন ১৩, ২০২৪ - ৫:০৭ অপরাহ্ন

সমাবেশ শেষে বিএনপিকর্মীরা ঘরে ফিরে যাবে, আশা পুলিশের

  • আপডেট: Saturday, December 10, 2022 - 2:00 pm

অনলাইন ডেস্ক: ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার বলেছেন, আমরা আশা করছি গোলাপবাগে সমাবেশ করার পর বিএনপিকর্মীরা ঘরে ফিরে যাবে। তা না করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে তা কঠোরভাবে দমন করা হবে।

সমাবেশ শুরুর আগে থেকেই বিএনপির বহুল আলোচিত এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে পুলিশ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে। রাজধানীর প্রবেশমুখগুলোতেও চলছে তল্লাশি। শনিবার সকাল ১১টায় সায়েদাবাদের কাছে গোলাপবাগ মাঠে বিএনপির সমাবেশ শুরু হয়। তার আগে রাত থেকেই বিএনপিকর্মীরা সেখানে জড়ো হতে শুরু করে।

পুলিশ জানায়, ঢাকায় সমাবেশকে কেন্দ্র করে সন্দেহভাজন হিসেবে শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ১০৩ জনকে লোকজন আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে উত্তরা বিভাগের বিমানবন্দর থানায় ৩১ জন, উত্তরা পূর্ব থানায় ৩০, দক্ষিণখান থানায় ২ ও উত্তরখান থানায় ৪০ জনকে আটক করা হয়।

তবে উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি মো. মহসিন জানান, বিএনপির গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে আমার থানায় কোনো গ্রেপ্তার বা আটক নেই।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস) এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেছেন, শর্তসাপেক্ষে বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ শেষ করার দায়িত্ব বিএনপির। নিরাপত্তা বিধানে শুধু পুলিশের পক্ষ থেকে ৩৪ হাজার জনবল মোতায়েন করা হয়েছে। এর বাইরে র‌্যাব-আনসারও রয়েছে। আশা করছি, শান্তিপূর্ণভাবেই সমাবেশ শেষ করে ফিরে যাবেন তারা।

সার্বিক নিরাপত্তা সম্পর্কে ডিএমপির এ অতিরিক্ত কমিশনার বলেন, সমাবেশ তো গোলাপবাগে। তবে পুরো ডিএমপি এলাকায় নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রত্যেক বিভাগেই পুলিশ মোতায়েন করা আছে।

হাফিজ আক্তার বলেন, সমাবেশকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা বিধানে সমাবেশস্থল ও এর আশপাশের এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। বিশেষ করে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ কেপিআইভুক্ত সব প্রতিষ্ঠান ও স্থাপনার নিরাপত্তায় পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। জন চলাচল কোথাও বন্ধ রাখা হয়েছে। চাইছি সমাবেশ শান্তিপূর্ণ হোক, জননিরাপত্তা বিঘ্নিত না হোক।

সোনালী/জেআর