ঢাকা | জুলাই ১৮, ২০২৪ - ২:২৯ পূর্বাহ্ন

বাজে আম্পায়ারিংয়ের শিকার সাকিব, ব্যাট মাটিতেও লাগেনি

  • আপডেট: Sunday, November 6, 2022 - 12:32 pm

অনলাইন ডেস্ক: ১১তম ওভারে শাদাব খানের ফুল লেন্থের বলটি কি সাকিবের ব্যাটে লেগেছিল? নাকি সাকিবের ব্যাট মাটিতে লেগেছিল? বল কি সাকিবের ব্যাটে লেগে তার পায়ে গিয়েছিল নাকি ব্যাটে না লেগেই পায়ে গিয়েছিল?- এ নিয়ে শুরু হয়েছে তুমুল বিতর্ক।

তবে এখনও পর্যন্ত পাওয়া সব আলোচনার সারাংশ হচ্ছে, টিভি আম্পায়ার লংটন রুসেরি ভুল করেছেন। হয়তো তিনি ভুল করেছেন, নয়তো ইচ্ছা করেই ভুলের ধুয়ো তুলে সাকিব আল হাসানকে আউট দিয়েছেন বড় দলকে ফেবার করার জন্য! সবচেয়ে বড় কথা খুবই বাজে আম্পায়ারিং হলো বাংলাদেশের সঙ্গে।

ফেসবুক, টুইটারসহ নানা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল আলোচনা এ নিয়ে। সাকিবকে ভুল করেই আউট দিয়েছেন আম্পায়ার। কারণ বল সাকিবের ব্যাট ছুঁয়ে গিয়েছিল। হক আই ভিউতে যে আলট্রা এজ দেখা গিয়েছিল, সেটা বল ব্যাটকে ছুঁয়ে যাওয়াই প্রমাণ করে।

অথচ থার্ড আম্পায়ার বলছিলেন, সাকিবের ব্যাট মাটিতে স্পর্শ করার সাউন্ডটাই রিপ্লাইতে আল্ট্রা এজ হিসেবে ধরা দিয়েছে। সুতরাং সাকিব আউট। কিন্তু আম্পায়ার যদি ভালো করে খেয়াল করতেন, তাহলে দেখতেন সাকিবের ব্যাট মাটিই স্পর্শ করেনি। আল্ট্রা এজ সাউন্ড যেটা মনিটর হয়েছে, সেটা বল-ব্যাটেরই।

ভারতের সাবেক ক্রিকেটার এবং বর্তমানে ক্রিকেট বিশ্লেষক আকাশ চোপড়া ভালো করে বিষয়টা পর্যবেক্ষণ করে সঙ্গে সঙ্গেই টুইট করেন, ‘সাকিবের ব্যাট কোনোভাবেই মাটি স্পর্শ করেনি। শুধু ব্যাটের ছায়াটা দেখলেই হবে। এখানে ছিল স্পাইক, এখানে বল ব্যাটে লাগাছাড়া আর কিছুই ঘটেনি। বাংলাদেশ আবারও খুবই বাজে আম্পায়ারিংয়ের শিকার হলো।’

শুধু আকাশ চোপড়াই নয়, টুইটারে নানাজন ভিডিও এবং ছবি পোস্ট করে লিখছেন, সাকিব আউট হননি, ব্যাট মাটিতে লাগেনি। বরং বলই ব্যাটে লেগেছে।

বাংলাদেশের ব্যাটিং শেষে পাকিস্তানি বোলার শাদাব খানকে জিজ্ঞাসা করা হয় সাকিবের আউট সম্পর্কে। সাকিবের আউট নিয়ে যে তারও সন্দেহ রয়েছে সেটা শাদাবের কথাতেই স্পষ্ট। তিনি বলেন, ‘যদি আম্পায়ার আউট দেয়, তাহলে তো এটা আউটই!’

বাজে আম্পায়ারিংয়ে শিকার হয়ে ভারতের কাছেও হারতে হয়েছিল বাংলাদেশকে। বিরাট কোহলির ফেক ফিল্ডিংয়ে ৫ রান পেনাল্টি না দেয়া, বৃষ্টির পর ২০ মিনিট যাওয়া তো ‍দূরে থাক ৮-৯ মিনিট যেতে না যেতেই ভেজা মাঠে খেলা শুরু করা এবং ডিএল মেথডে লক্ষ্য সঠিকভাবে নির্ধারণ না করা- সব মিলিয়ে খুবই বাজে আম্পায়ারিংয়ের শিকার হয়ে সেদিন ৫ রানে হারতে হয়েছিল বাংলাদেশ। এবার পাকিস্তানের বিপক্ষেও বাজে আম্পায়ারিংয়ের শিকার বাংলাদেশ।

সাকিব আল হাসান ওই সময় আউট না হলে যে বাংলাদেশ বড় কিছু করতে পারতো না নয়। আবার বড় স্কোর গড়ার সুযোগও পেয়ে যেতে পারতো। শাদাব খানের ওই সময় পরপর দুটি আউটের কারণেই তো ব্যাকফুটে চলে যায় বাংলাদেশ। যেখান থেকে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি টাইগাররা।

সোনালী/জেআর