ঢাকা | জুলাই ২৪, ২০২৪ - ১২:২৪ অপরাহ্ন

রাবিতে দুই দিনব্যাপী চিহ্ন মেলা শুরু সোমবার

  • আপডেট: Saturday, October 15, 2022 - 10:46 pm

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক: রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ে (রাবি) ছোট কাগজ ‘চিহ্ন’র আয়োজনে সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে ‘চিহ্নমেলা মুক্তবাঙলা-২০২২’। দুইদিনব্যাপী এ মেলায় দেশি-বিদেশি প্রায় চার শতাধিক লেখক-পাঠক-সম্পাদক অংশ নিচ্ছেন। এবার বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে দুটি ছোট কাগজ ও দুই জন সাহিত্যিককে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হবে। শনিবার বেলা ১১টায় বিশ^বিদ্যালয়ের ড. মু. শহীদুল্লাহ অ্যাকাডেমিক ভবন চত্বরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ‘চিহ্ন’ সম্পাদক অধ্যাপক শহীদ ইকবাল।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আগামীকাল সোমবার সকাল ১০টায় ‘চিহ্নমেলা’র উদ্বোধন করবেন পশ্চিম বাংলার প্রখ্যাত লিটলম্যাগ ব্যক্তিত্ব সন্দীপ দত্ত। উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত কবি নির্মলেন্দু গুণ। এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত থাকবেন প্রাবন্ধিক ও বঙ্গবন্ধু চেয়ার অধ্যাপক সনৎকুমার সাহা ও কবি জুলফিকার মতিন।

লিখিত বক্তব্য তিনি আরও বলেন, এবারের মেলায় বাংলাদেশের ১০৫ টি এবং ভারতের ৬৫টি লিটল ম্যাগ অংশগ্রহণ করবে। এর মধ্যে চট্টগ্রাম থেকে আলী প্রয়াসের সম্পাদনায় প্রকাশিত ছোট কাগজ ‘তৃতীয় চোখ’ এবং কলকাতা থেকে অমলিন্দু বিশ্বাসের সম্পাদনায় প্রকাশিত ‘নৌকো’কে ‘চিহ্ন লিটলম্যাগ সম্মাননা’ প্রদান করা হবে। এছাড়া সাহিত্যে বিশেষ অবদান রাখায় কথাসাহিত্যিক হামিদ কায়সারকে ‘চিহ্ন সাহিত্য পুরস্কার’ এবং কবি জুলফিকার মতিনকে ‘চিহ্ন সারস্বত-সম্মাননা’ প্রদান করা হবে।

আগামীকাল সোমবার মেলার মূল অনুষ্ঠানের প্রথমেই স্মরণ করা হবে প্রয়াত প্রতিথযশা লেখকদের। বাংলা একাডেমির পরিচালক আমিনুর রহমান সুলতানের সঞ্চালনায় ‘প্রয়াত-প্রিয়জন’ শীর্ষক পর্বে শঙ্খ ঘোষ, সৈয়দ শামসুল হক, দেবেশ রায়, আনিসুজ্জামান, হাসান আজিজুল হকের স্মৃতিচারণ করবেন নির্মলেন্দু গুণ, সনৎকুমার সাহা, জুলফিকার মতিন, রুহুল আমিন প্রামাণিক, ইমানুল হক ও অমল সরকার।

এরপর অধ্যাপক, প্রাবন্ধিক মোহাম্মদ আজম ‘সৃষ্টিশীলতার সমাজতত্ত্ব ও লিটিলম্যাগ’ নিয়ে একক বক্তৃতা করবেন। অনুবাদ প্রসঙ্গ নিয়ে কথাসাহিত্যিক মোজাফ্ফর হোসেনের সঞ্চালনায় কথা বলবেন আলম খোরশেদ, শরীফ আতিক-উজ-জামান, সফিকুল ইসলাম, প্রত্যয় হামিদ ও মুহম্মদ মুহসীন।

এর পরেই মামুন মুস্তাফার সঞ্চালনায় দুই বাংলার কবিতা ও গল্পপাঠে অংশ নেবেন সৈকত হাবিব, আসাদ মান্নান, জফির সেতু, বদরে মুনীর, শামীম হোসেন, নৃপেন চক্রবর্তী, সিরাজদৌলা বাহার, অলোক বিশ্বাস, কামরুল বাহার আরিফ, শিবলী মুক্তাদির, সরোজ দেব, গাজী লতিফ, দ্বিজেন্দ্র ভৌমিক, মাহবুব বারী, কামরুজ্জামান গোপন, শাম্স সুমন, কুমার দীপ, অভিজিৎ বিশ্বাস, নাজমুল হাছান সুমন, মাসউদ আখতার, আনিফ রুবেদ, সরকার মাসুদ, মঈন শেখ, সুবন্ত যায়েদ প্রমুখ।

প্রথম দিনের সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় বাঁশি বাজাবেন প্রখ্যাত বংশীবাদক হাসন রাজা, সংগীত পরিবেশন করবেন কাঙালিনী সুফিয়া। দ্বিতীয় দিনের বিভিন্ন পর্বে অংশ নেবেন লেখক ইমতিয়ার শামীম, হোসেনউদ্দীন হোসেন, গৌতম গুহ রায়, আহমেদ শিপলু, কানাই সেন, অনিরুদ্ধ কাহালি, তারেক রেজা, রাহেল রাজীব, মোস্তাক আহমেদ, নারায়ণ রায়, রাজা সহিদুল আসলাম, মনিরুল মনির, মনজু রহমান প্রমুখ। দ্বিতীয় দিনে চিহ্ন পুরস্কার প্রদান করা হবে। এরপরে সন্ধ্যায় বাউল ঘরানার গানের দল ‘মাতাল’র পরিবেশনার মাধ্যমে চিহ্নের দুই দিনের আয়োজনের সমাপ্তি হবে।

প্রসঙ্গত, বিশ^বিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক শহীদ ইকবালের সম্পাদনায় ‘চিহ্ন’ প্রায় দুই দশক থেকে নিয়মিত বের হচ্ছে। পত্রিকাটি ২০১১ সালে প্রথমবারের মতো দেশের লেখক-লিটল ম্যাগাজিনের সম্পাদক আর বুদ্ধিবৃত্তির মানুষদের নিয়ে আয়োজন করে চিহ্নমেলার। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৩ সালে দ্বিতীয়বারের মতো, ২০১৬ সালে তৃতীয়বারের মতো, ২০১৯ সালে চতুর্থ এবং এবার ২০২২ সালে পঞ্চমবারের মতো এ আসর বসতে যাচ্ছে। এবারের ‘চিহ্নমেলা মুক্তবাংলা’ নামে আসরটি বসবে। এ আসরে দেশি-বিদেশি প্রায় দুইশ লিটল ম্যাগসহ চার শতাধিক লেখক-পাঠক-সম্পাদক অংশ নেবেন। ভারতের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে বাংলাভাষি প্রায় দেড় শতাধিক লেখক, সম্পাদক ও তাত্ত্বিক এতে অংশ নেবেন।