ঢাকা | জুন ২৫, ২০২৪ - ৬:০৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

জমি লিখে না দেয়ায় মাকে পেটালেন ছেলে

  • আপডেট: Saturday, September 3, 2022 - 11:32 pm

নিয়ামতপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নিয়ামতপুরে ছেলেকে জমি লিখে না দেয়ায় মাকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে ছেলের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের রামগাঁ গ্রামে।

এ ঘটনায় মা রাশিদা বেগম (৫৬) নিজে বাদী হয়ে ছেলে সাইদুর রহমান (৪০) ও ছেলের স্ত্রী নুরেকা (৩৫) এর বিরুদ্ধে পরদিন শুক্রবার থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। রাশিদা বেগম উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের রামগাঁ গ্রামের বাসিন্দা মৃত নাজিমুদ্দিনের স্ত্রী।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, রাশিদা বেগমের ছেলে সাইদুর। সে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় মায়ের কাছ জমি লিখে নেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে। জমি লিখে দিতে অস্বীকার করলে ছেলে ও ছেলের স্ত্রী মিলে মারধর করে মা রাশিদা বেগমকে। এছাড়াও এর পূর্বে ২৯ আগস্ট রাশিদা বেগমের গরু বিক্রি করে টাকা দাবি করে ছেলে সাইদুর।

গরু বিক্রি করতে না দিলে আবারও মারধরের স্বীকার হন ওই নারী। বর্তমানে ছেলে ও ছেলের বউ এর নির্যাতনে প্রাণ ভয়ে প্রতিবেশী সেফাত উদ্দিনের বাসায় আশ্রয় নিয়েছেন ওই নারী। এ সুযোগে মার অনুপস্থিতিতে তার শেষ সম্বল গরু বিক্রি করে দেয় ছেলে সাইদুর। খবর পেয়ে বাড়িতে এসে প্রতিবাদ করলে আবারও ছেলের হাতে মারধরের শিকার হন ওই নারী।

ভুক্তভোগী নারী রাশিদা বেগম জানান, আমার ছেলে ও ছেলের স্ত্রী মিলে জমি লিখে নেয়ার জন্য চাপ দেয়। জমি লিখে না দেয়ায় তারা দু’জনে মিলে এখন পর্যন্ত ৪ বার মারধর করেছে আমাকে। আমার অনুপস্থিতিতে পোষা গরুটিও বিক্রি করে দিয়েছে তারা। আমি এখন প্রাণের ভয়ে প্রতিবেশির বাড়িতে আশ্রিত আছি।

এ ঘটনায় ছেলে সাইদুর রহমানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। স্থানীয়রা জানায়, মাকে মারধরের পর থেকে তাদের আর গ্রামে দেখা যাচ্ছে না।

নিয়ামতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।