ঢাকা | জুন ২২, ২০২৪ - ৬:১৪ অপরাহ্ন

২৬ বছর ধরে একা বাস করা আদিবাসী সম্প্রদায়ের শেষ ব্যক্তির মৃত্যু

  • আপডেট: Tuesday, August 30, 2022 - 1:50 pm

অনলাইন ডেস্ক: ব্রাজিলের রনডোনিয়া রাজ্যের জঙ্গলে বসবাস করা এক আদিবাসী সম্প্রদায়ের শেষ ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। গত ২৩ আগস্ট খড়ের কুঁড়েঘরের বাইরে তার মৃতদেহ পাওয়া যায়। তবে তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন ছিল না। ধারণা করা হচ্ছে, স্বাভাবিকভাবেই তার মৃত্যু হয়েছে। তার বয়স হয়েছিল আনুমানিক ৬০ বছর।

বিশ্বের মানুষের কাছে ওই ব্যক্তি গর্ত মানব নামে পরিচিত ছিলেন। নাম না জানা ওই ব্যক্তি গত ২৬ বছর ধরে সম্পূর্ণ একা বাস করছিলেন বনে। বলিভিয়ার সীমান্তবর্তী তানারু এলাকায় বসবাসকারী একটি আদিবাসী গোষ্ঠীর শেষ ব্যক্তি ছিলেন তিনি। খবর বিবিসির

তার গোত্রের বেশিরভাগ মানুষই ৭০-এর দশকের গোড়ার দিকে জমি সম্প্রসারণ করতে চাওয়া পশুপালকদের হামলায় নিহত হয়েছিলেন বলে ধারণা করা হয়। ১৯৯৫ সালে ওই ব্যক্তির সম্প্রদায়ের ছয়জনকে হত্যা করা হয়। তারপর থেকে তিনিই তার সম্প্রদায়ের একমাত্র জীবিত ব্যক্তি ছিলেন।

১৯৯৬ সাল থেকে ব্রাজিলের ‘ইন্ডিজেনাস অ্যাফেয়ার্স এজেন্সির (ফুনাই) এজেন্টরা তার বেঁচে থাকার খবর পেয়ে তার ওপর চোখ রেখেছিল। বেঁচে যাওয়া ওই ব্যক্তির তার ওপর নজর রেখেছিল খোঁজ পাওয়ার পর। রুটিন টহল চলাকালীন ফুনাই এজেন্ট আলতাইর হোসে তার খড়ের কুঁড়েঘরের বাইরে মরদেহ দেখতে পান।

আদিবাসী বিশেষজ্ঞ মার্সেলো ডস সান্তোস স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, মারা যাচ্ছে বুঝতে পেরেই লোকটি হয়তো তার গায়ে পালক লাগিয়েছিলেন।

তিনি আরও জানান, সম্ভবত মরদেহ খুঁজে পাওয়ার ৪০ থেকে ৫০ দিন আগে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

মার্সেলো ডস সান্তোস বলেন, যেহেতু বাইরের জগতের কারও সাথে ওই ব্যক্তির যোগাযোগ ছিল না তাই তিনি কোন ভাষায় কথা বলতেন বা কোন সম্প্রদায়ের ছিলেন তা জানা যায়নি।

ব্রাজিলে প্রায় ২৪০ টি আদিবাসী জনগোষ্ঠী রয়েছে, যার মধ্যে অনেকেই হুমকির মধ্যে আছেন। এর কারণ অবৈধ খনি শ্রমিক এবং কৃষকরা তাদের ভূখণ্ড দখল করে নিচ্ছে।

সোনালী/জেআর