ঢাকা | জুন ২৫, ২০২৪ - ৪:৩৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

ইউরোপজুড়ে জ্বালানি সংকট, গ্যাস পুড়াচ্ছে রাশিয়া

  • আপডেট: Friday, August 26, 2022 - 11:02 pm

অনলাইন ডেস্ক: ইউরোপজুড়ে জ্বালানি সংকটে দাম আকাশ ছোঁয়ার মধ্যেই বিপুল পরিমাণ প্রাকৃতিক গ্যাস পুড়াতে শুরু করেছে রাশিয়া। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির কাছে এ বিশ্লেষণের কথা জানায় জ্বালানি গবেষণা কোম্পানি রিস্তাদ এনার্জি।

কোম্পানিটির বিশ্লেষণে বলা হয়েছে, ফিনল্যান্ড সীমান্তের কাছে রাশিয়ার একটি গ্যাসক্ষেত্রে প্রতিদিন ১ কোটি ডলার মূল্যের গ্যাস পুড়ানো হচ্ছে।

এদিকে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ গ্যাস আগে জার্মানিতে রপ্তানি করা হত।

যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত জার্মানির রাষ্ট্রদূত বলেন, রাশিয়া এই গ্যাস পুড়িয়ে ফেলছে। কারণ, এটি কোথাও বিক্রি করার নেই। গ্যাস পুড়ানোর ফলে যে বিপুল পরিমাণ কার্বন ডাই-অক্সাইড নিঃসৃত হচ্ছে তাতে জলবায়ু পরিবর্তনের কুপ্রভাব বেড়ে যাওয়া নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিজ্ঞানীরা।

রিস্তাদ এনার্জি তাদের বিশ্লেষণে বলেছে, প্রতিদিন প্রায় ৪৪ লাখ ৩০ হাজার কিউবিক মিটার গ্যাস পুড়ানো হচ্ছে। রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গের উত্তর-পশ্চিমের পরটোভায়া তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) প্ল্যান্ট থেকে এই গ্যাস আসছে।

জার্মানিতে গ্যাস পৌঁছে দেয়া নর্ডস্টিম ১ পাইপলাইনের একটি কমপ্রেসর স্টেশনের কাছে এ গ্যাসক্ষেত্র অবস্থিত, যেখান থেকে সমুদ্রের তল দিয়ে জার্মানিতে গ্যাস পাঠাত রাশিয়া।

গত জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে রাশিয়া যন্ত্রিক ত্রুটির কথা বলে এই পাইপলাইন দিয়ে গ্যাস সরবরাহ কমিয়ে দিয়েছে। তবে জার্মানি অভিযোগ করে বলেছে, রাশিয়া ইউক্রেইনে সামরিক অভিযান শুরুর পর গ্যাস নিয়ে রাজনীতি শুরু করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রে ওহাইওর মিয়ামি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্যাটেলাইট ডাটা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ড. জেসিকা ম্যাককার্টি বলেন, আমি কোনও এলএনজি প্ল্যান্টে কখনও এমন গ্যাস জ্বলতে দেখিনি। জুনের দিকে এটি শুরু হয়েছে এবং এখনও তা চলছে। অস্বাভাবিকরকম উচ্চমাত্রায় গ্যাস জ্বলছে।

রাশিয়া থেকে প্রাকৃতিক গ্যাসের সরবরাহ কমে যাওয়ায় ইউরোপে হু হু করে জ্বালানির দাম বাড়ার মধ্যেই এভাবে পুড়ছে গ্যাস।

যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত জার্মানির রাষ্ট্রদূত বলেন, রাশিয়ার গ্যাসের ওপর থেকে ইউরোপের নির্ভরশীলতা কমানোর চেষ্টা দেশটির অর্থনীতিতে বড় ধরনের প্রভাব ফেলছে। তারা তাদের গ্যাস বিক্রির অন্য আর কোনও জায়গা পাচ্ছে না। সেকারণে তাদেরকে গ্যাস পুড়িয়ে ফেলতে হচ্ছে।