ঢাকা | জুন ২১, ২০২৪ - ১২:০৪ পূর্বাহ্ন

নগ্ন ছবি ও ভিডিও ব্যবসার গোপন জগতের সন্ধান

  • আপডেট: Wednesday, August 24, 2022 - 1:52 pm

অনলাইন ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম রেডিটে ব্যক্তিগত বিবরণ, অন্তরঙ্গ ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করার পর নারীরা হুমকি এবং ব্ল্যাকমেলের মুখোমুখি হচ্ছেন। আর এসব ছবি ও ভিডিও শেয়ার করা হচ্ছে সংশ্লিষ্ট নারীদের অনুমতি ছাড়াই। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রেডিটে এমন হাজার হাজার আপত্তিকর ছবি পাওয়া গেছে। নগ্ন বা স্বল্প পোশাক পরা নারীদের প্রচুর ছবি রয়েছে। এসব ছবির নিচে পুরুষরা নারীদের সম্পর্কে জঘন্য মন্তব্য করছেন। এমনকি ধর্ষণের হুমকি পর্যন্ত দিচ্ছেন।

ইনস্টাগ্রামসহ নানা মাধ্যম থেকে ছবি চুরি করে রেডিটে পোস্ট করা হচ্ছে। সেসব ছবিতে অপমানজনক মন্তব্য ধেয়ে আসছে। ভুক্তভোগীরা এ নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

বিবিসি তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মনে হচ্ছে রেডিট নারীদের স্পর্শকাতর ছবি বিক্রির মার্কেটপ্লেস। শত শত বেনামী প্রোফাইল থেকে নারীর স্পর্শকাতর ছবি শেয়ার ও বিক্রি করছে। সংশ্লিষ্ট নারীদের অনুমতি ছাড়াই এটা করা হচ্ছে বলে প্রতিবেদকের মনে হয়েছে।

প্রতিবেদক জানান, এটি তথাকথিত ‌‌‌‘রিভেঞ্জ পর্ন’র একটি নতুন বিবর্তন বলে তার মনে হয়েছে। যেখানে ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও সম্মতি ছাড়াই অনলাইনে প্রকাশ করা হয়।

এই অন্তরঙ্গ ছবিগুলি কেবল হাজার হাজার দর্শকের জন্যই শেয়ারই করা হয়নি। মুখোশের আড়ালে লুকিয়ে থাকা অজ্ঞাত ব্যক্তিরা সংশ্লিষ্ট নারীর পরিচয়ও প্রকাশ করে দিচ্ছে। এসব নারীর ঠিকানা, ফোন নম্বর এবং সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল শেয়ার করা হচ্ছে। এর ফলে এসব নারী আপত্তিকর মন্তব্য, হুমকি এবং ব্ল্যাকমেলের লক্ষ্যবস্তু হচ্ছেন।

রেডিটে ঘটে চলা এসব কর্মকাণ্ড দেখার পর প্রতিবেদক মনিকা প্লাহা মন্তব্য করেছেন, ‘আমি ইন্টারনেটের খুব অন্ধকার কোণে হোঁচট খেয়েছি বলে মনে হয়েছে। কিন্তু এটি ঘটছে প্রধানসারির একটি সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে’।

সোনালী/জেআর