ঢাকা | জুন ১৯, ২০২৪ - ১১:০১ পূর্বাহ্ন

এবার বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে মামলা করলেন ট্রাম্প

  • আপডেট: Tuesday, August 23, 2022 - 9:44 pm

 

অনলাইন ডেস্ক: মার্কিন বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার ফ্লোরিডার বাড়ি থেকে জব্দ করা নথিপত্র নিয়ে বিচার বিভাগের তদন্ত স্থগিত করার জন্য আবেদন করেছেন তিনি। ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া যায়।

সোমবার আদালতে দায়ের করা ওই মামলায় ট্রাম্পের আইনজীবীরা অনুরোধ করেছেন, তার বাড়ি থেকে জব্দকৃত নথিপত্র যাচাই করার সময় যেন একজন নিরপেক্ষ আইনজীবী বা একজন থার্ড পার্টি অ্যাটর্নি নিয়োগ দেওয়া হয়। যিনি যাচাই করে দেখবেন যে, এসব নথিপত্র নির্বাহী সুবিধার আওতায় পড়ে কি না। মামলার আবেদনে আরও বলা হয়েছে, অর্থপূর্ণ সুরক্ষা ছাড়া প্রসিকিউশনকে এসব নথিপত্র যাচাই করতে দেওয়া গ্রহণযোগ্য হবে না।

ফ্লোরিডার আদালতে জমা দেওয়া ২৭ পৃষ্ঠার আবেদনে ট্রাম্পের আইনজীবিরা বলেন, মার-এ-লাগোতে আইন মন্ত্রণালয়ের তল্লাশিকে ‘রাজনৈতিক ভাবে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ বলে অভিহিত করা হয়েছে। ট্রাম্পকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন থেকে দূরে রাখার ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই এই তল্লাশি চালনো হয় বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

এদিকে ট্রাম্পের এই পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়ায় মার্কিন বিচার বিভাগ এক বিবৃতিতে বলেছে, ট্রাম্পের মামলা সম্পর্কে প্রসিকিউটররা অবগত রয়েছেন। আদালতে এ বিষয়ে জবাব দেওয়া হবে। মার্কিন বিচার বিভাগের মুখপাত্র অ্যান্থনি কোলি বলেছেন, যথাযথ কারণেই প্রয়োজনীয় অনুসন্ধানের জন্য একটি ফেডারেল আদালত কর্তৃক মার-এ-লাগোতে অনুসন্ধান পরোয়ানা অনুমোদিত হয়েছিল।

সোমবারের মামলার আবেদনটি করা হয়েছে ফ্লোরিডার ওয়েস্ট পাম বীচের এমন একজন বিচারকের আদালতে যাকে ২০২০ সালে ট্রাম্প মনোনয়ন দিয়েছিলেন। এখন এই মামলার রায়ে পক্ষপাতিত হতে পারে বলেও আশঙ্কা করছেন অনেকে।

উল্লেখ্য, গত ৮ আগস্ট ফ্লোরিডার মার-এ-লাগো বাড়ি থেকে ১১ সেট গোপনীয় কাগজপত্র জব্দ করে এফবিআই। সেগুলোর মধ্যে কিছু নথি গোপনীয়। কিছু দলিলপত্রে এমন সব তথ্য আছে যা যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকির কারণ হতে পারে বলে এফবিআই কর্মকর্তারা উল্লেখ করেছেন।