ঢাকা | জুন ২০, ২০২৪ - ১১:৩৬ অপরাহ্ন

নিয়ামতপুরে প্রেমিকাকে ধর্ষণ, প্রেমিক কারাগারে

  • আপডেট: Saturday, August 20, 2022 - 10:03 pm

নিয়ামতপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নিয়ামতপুরে কলেজপড়ুয়া এক ছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণের ঘটনায় প্রেমিক আফাল মাহাতোকে (২২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থীর বাবার করা মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে জেলহাজতে পাঠানো হয়। ধর্ষক আফাল মাহাতো উপজেলার নেহেন্দা গড়গড়িয়া পাড়ার মৃত ধনা মাহাতোর ছেলে।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী ওই তরুনী নিয়ামতপুর সরকারি কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। আসামি আফাল মাহাতো দীর্ঘদিন ওই তরুনীকে উক্ত্যক্ত করার এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর মাঝে মধ্যেই প্রেমিকাকে অনৈতিক সম্পর্কের কথা বলে প্রেমিক আফাল।

কিন্তু তার প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় ৯ জুন গভীর রাতে প্রেমিকার ঘরে প্রবেশ করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে আফাল মাহাতো। এমন ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর চিৎকারে ছুটে আসে তার বাবা-মাসহ প্রতিবেশীরা। পরে একমাস পরে বিয়ে করার আশ্বাস দিলে বিষয়টি গোপন রেখে ধর্ষক আফালকে ছেড়ে দেয় তারা। কিন্তু একমাস পার হওয়ার পর ওই শিক্ষার্থীর পরিবার বিয়ের জন্য বললে বিষয়টি এড়িয়ে যান ধর্ষক যুবক।

ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থীর বাবা বলেন, আমরা আদিবাসী গোত্রের মানুষ হওয়ায় মান-সম্মানের ভয়ে বিয়ে করতে রাজি হওয়ায় বিষয়টি গোপন রাখি ও তাকে ছেড়ে দিই। কিন্তু একমাস পার হয়ে গেলে বিয়ের কথা বললেই বিয়ে করতে পারবে না বলে জানায় আফাল মাহাতো। শেষে কোন উপায় না পেয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছি।

নিয়ামতপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থীর বাবার করা মামলায় ধর্ষককে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে এবং ওই তরুনীকে পরীক্ষার জন্য মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে।