ঢাকা | জুন ১৮, ২০২৪ - ৫:০৯ অপরাহ্ন

তৃতীয় মাসেও চীনে শীর্ষ জ্বালানি তেল সরবরাহকারী রাশিয়া

  • আপডেট: Saturday, August 20, 2022 - 8:28 pm

 

অনলাইন ডেস্ক: তৃতীয় মাসের মতো জুলাইয়েও চীনের জ্বালানি তেল সরবরাহকারী হিসেবে শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে রাশিয়া। শনিবার প্রকাশিত তথ্যে এমনটি দেখা গেছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানা যায়, চীনের স্বায়ত্তশাসিত তেল শোধনাগারগুলো ব্রাজিল ও অ্যাঙ্গোলা থেকে আমদানি কমিয়ে রাশিয়া থেকে হ্রাসকৃত মূল্যে জ্বালানি তেল কেনা বাড়িয়েছে।

চীনের জেনারেল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অব কাস্টমসের তথ্যে দেখা গেছে, রাশিয়া থেকে এক বছর আগের চেয়ে দেশটির তেল আমদানি ৭ দশমিক ৬ শতাংশ বেড়ে মোট ৭১ লাখ ৫০ হাজার টনে দাঁড়িয়েছে। এসব তেল ইস্টার্ন সাইবেরিয়া প্যাসিফিক ওশেন পাইপলাইন এবং রাশিয়ার ইউরোপীয় ও দূর প্রাচ্যের এশীয় বন্দরগুলো দিয়ে জাহাজ যোগেআমদানি করা হচ্ছে। তবে মে মাসে রাশিয়ার দৈনিক সরবরাহ রেকর্ড প্রায় ২০ লাখ ব্যারেল হলেও জুলাইতে তা কমে ১৬ লাখ ৮০ হাজার ব্যারেলে দাঁড়িয়েছে। চীন রাশিয়ার জ্বালানি তেলের সর্ববৃহৎ ক্রেতা।

রাশিয়ার পর দ্বিতীয় স্থানে থাকা সৌদি আরব থেকে তেল আমদানি জুনে তিন বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে সবচেয়ে কম হলেও জুলাইতে আবার বেড়ে দৈনিক ১৫ লাখ ৪০ হাজার ব্যারেল হিসেবে মোট ৬৫ লাখ ৬০ হাজার টনে দাঁড়িয়েছে। তবে তা এখনও এক বছর আগের পরিমাণ থেকে কিছুটা কম আছে।

চীন বছরের শুরু থেকে এ পর্যন্ত রাশিয়া থেকে মোট ৪ কোটি ৮৪ লাখ ৫০ হাজার টন আর সৌদি আরব থেকে ৪ কোটি ৯৮ লাখ ৪০ হাজার টন তেল আমদানি করেছে। এখানে সৌদি আরব থেকে এখনও পিছিয়ে আছে রাশিয়া। রাশিয়া থেকে আমদানি বাড়ায় অ্যাঙ্গোলা ও ব্রাজিল থেকে চীনের তেল আমদানি কমেছে।

কাস্টমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, জুলাইয়ে ভেনেজুয়েলা ও ইরান থেকে কোনো তেল আমদানি করেনি চীন। যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার কারণে ২০১৯ সাল থেকেই এ দুটি দেশ থেকে তেল আমদানি কমাতে শুরু করেছিল চীন।

গত দুই বছর ধরে ইরান ও ভেনেজুয়েলায় উৎপন্ন তেলের স্থানান্তর পয়েন্ট হিসেবে প্রায়ই ব্যবহৃত হয়ে আসা মালয়েশিয়া থেকে চলতি বছর চীনের জ্বালানি তেল আমদানি জুনের ২৬ লাখ ৫০ হাজার টন থেকে বেড়ে জুলাইতে ৩৩ লাখ ৪০ হাজার টনে দাঁড়িয়েছে।