ঢাকা | জুন ২৫, ২০২৪ - ৫:৪৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

কাউন্সিলের সালিসে বিচার না পেয়ে যুবকের আত্মহত্যা

  • আপডেট: Thursday, August 18, 2022 - 10:39 pm

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে ওয়ার্ড কাউন্সিলের কার্যালয়ে সঠিক বিচার না পেয়ে এক যুবক আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বুধবার দিবাগত রাতে ওই যুবক বাড়িতে গিয়ে নিজ ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজপাড়া থানার বসুয়া এলাকায় ঘরের দরজা ভেঙে ওই যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মৃত যুবকের নাম ইয়ামিন (২৩)। তিনি বসুয়া এলাকার বাবুর ছেলে।

পরিবারের অভিযোগ সঠিক বিচার না পেয়ে ইয়ামিন আত্মহত্যা করেছে। ইয়ামিনের বাবা বাবু জানান, কয়েক দিন আগে ইয়ামিনকে মারধর করে এলাকার কয়েকজন ছেলে। এ ঘটনায় বুধবার দুই পক্ষকে ডেকে নিয়ে সালিসে বসেছিলেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনার। সেখানে তিনি পক্ষপাতিত্ব করেন। এই ক্ষোভেই ইয়ামিন গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। পরে বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ দরজা ভেঙে ইয়ামিনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেন।

তবে সালিস করার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন ১৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনার। তিনি বলেন, আমি কোন মারামারির সালিস করিনি কিন্তু পক্ষপাতিত্ব তো দূরে থাকলো। সালিস করলে ভুক্তভোগী আগে আমার অফিসে লিখিত অভিযোগ করবে। তারপর নোটিশ করে দুই পক্ষকে ডাকব। এসব কিছুই হয়নি।

ইয়ামিনকে কিভাবে চেনেন জানতে চাইলে কাউন্সিলর বলেন, এলাকার ছেলে হিসেবে চিনি। বুধবার তার অফিসে এসেছিল কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সে বুধবার আমার অফিসে এসেছিল।’

নগরীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ইয়ামিনের পরিবার বলছে, সালিসে বিচার না পেয়ে ইয়ামিন আত্মহত্যা করেছে। এ নিয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা দায়ের করেছে। মামলার বাদি হয়েছে তার ভাই। আসামি করা হয়েছে আট-নয়জকে।

তবে মামলার আসামি কারা হয়েছে তাদের নাম বলতে পারেননি ওসি। তিনি বলেন, ইয়ামিনের পরিবার যেভাবে মামলা করতে চেয়েছে সেভাবেই গ্রহণ করা হয়েছে। আমরা তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।