ঢাকা | জুন ২১, ২০২৪ - ১০:৪৮ অপরাহ্ন

১৩ বছরে কতো টাকা নিয়েছেন ওয়াসার এমডি, জানতে চান হাইকোর্ট

  • আপডেট: Wednesday, August 17, 2022 - 10:26 pm

 

অনলাইন ডেস্ক: ওয়াসার এমডি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর গত ১৩ বছরে তাকসিম এ খান বেতন, উৎসাহ ভাতা, আনুষঙ্গিক সুবিধা হিসেবে যত টাকা নিয়েছেন, তার হিসাব আগামী ৬০ দিনের মধ্যে আদালতে দাখিল করতে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

বুধবার বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। তিনি জানান, ঢাকা ওয়াসার এমডিকে অপসারণে নিস্ক্রিয়তা কেনো অবৈধ ঘোষণা করা হবে না এবং তাকে অপসারণের জন্য যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হবে না জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে আদালত।

তিনি আরও বলেন, ‘গত ১৩ বছরে কত টাকা বেতন, বোনাস এবং অন্যান্য সুবিধাদি দেয়া হয়েছে তার হিসাব আগামী ৬০ দিনের মধ্যে হাইকোর্টে জমা করতে বলেছেন আদালত।’

এছাড়া যতদিন পর্যন্ত তাকে অপসারণ করা না হবে ততদিন ২০১৫ সালের জাতীয় বেতন স্কেল অনুযায়ী তার বেতন নির্ধারণে কেনো নির্দেশ দেয়া হবে না, জানতেও রুল দিয়েছেন হাইকোর্ট।

কনজুমার অ্যাসোসিয়েশন অফ বাংলাদশ (ক্যাব) এর পক্ষে করা এক রিটের শুনানি নিয়ে আদালত এ আদেশ দেয়।

বিভিন্ন সময় আলোচিত এবং সমালোচিত হওয়া তাকসিম এ খান ২০০৯ সাল থেকে ঢাকা ওয়াসার এমডি পদে রয়েছেন। প্রথম নিয়োগের পর থেকে মোট ছয়বার তার মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে।

ঢাকার অনেক এলাকায় ওয়াসার সরবরাহ করা পানি পানের অনুপযুক্ত হলেও তিনি দাবি করেন ওয়াসার সরবরাহ করা পানি সুপেয় এবং তিনিও সেটি না ফুটিয়েই পান করেন।

পান যোগ্য পানি সরবাহর না করেও পানির দাম বৃদ্ধি, নিজের এবং কর্মীদের বেতন-ভাতা বাড়ানোর মতো প্রস্তাবের কারণে বেশ সমালোচিত হন তাকসিম এ খান।