ঢাকা | জুন ১৫, ২০২৪ - ১১:৩৮ অপরাহ্ন

শোক ও বিনম্র শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ

  • আপডেট: Tuesday, August 16, 2022 - 12:06 am

স্টাফ রিপোর্টার: স্বাধীনতার মহান স্থপতি ও সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম হত্যাবার্ষিকীতে বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করেছে রাজশাহী সাধারণ মানুষ। সোমবার নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে জাতির পিতাকে স্মরণ করা হয়।

জেলা প্রশাসন
রাজশাহী জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, শোক র‌্যালি, ও শিল্পকলা অ্যাকাডেমিতে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজশাহী জেলা প্রশাসক আবদুল জলিলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার জি এস এম জাফরউল্লাহ। আলোচনা সভায় অতিথি ছিলেন রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি আব্দুল বাতেন, আরএমপির কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক, পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আব্দুল হাদী। সভা শেষে বিভাগীয় কমিশনার বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

রাসিক
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে শোকর‌্যালি ও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়েছে। সোমবার সকাল ১০টায় সিএন্ডবি মোড়ে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে প্রথমে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন কাউন্সিলরবৃন্দ। এরপর কর্মকর্তাবৃন্দ-কর্মচারীবৃন্দ ও কর্মচারী ইউনিয়নের পক্ষ থেকে পৃথক পৃথকভাবে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত রানীনগর এলাকাস্থ সিটি হাসপাতালে সপ্তাহব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধন করা হয়। আগামী ২২ আগস্ট পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ৮টা হতে বেলা আড়াইটা পর্যন্ত ফ্রি চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হবে।

এছাড়াও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে নগর ভবনের সিটি হল সভাকক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, প্যানেল মেয়র-২ ও ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুজ্জামান, ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন, ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, রাসিক কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আজমীর আহাম্মদ মামুন। সভায় আলোচক হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর তানবিরুল আলম ও রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সাজ্জাদ বকুল।

জাতীয় শোক দিবসে সিটি কর্পোরেশন আয়োজিন অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে ছিল বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত শোক ব্যানার প্রদর্শন, সূর্যোদয়ের সাথে সাথে নগর ভবন ও ওয়ার্ড কার্যালয় সমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করে উত্তোলন, শোক র‌্যালি, বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন, বাদ যোহর সোনাদিঘী জামে মসজিদসহ সকল মসজিদে বিশেষ মোনাজাত, সুবিধাজনক সময়ে স্ব স্ব উপাসনালয়ে অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের বিশেষ প্রার্থনা, দুপুরে হতদরিদ্র ও ছিন্নমুল মানুষের জন্য খাদ্য বিতরণ, দিনব্যাপী বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচার, সপ্তাহব্যাপী সিটি হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা, মাসব্যাপী কালো ব্যাজ ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি সম্বলিত কোটপিন ধারন, কোরআনখানি, বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ইত্যাদি।

মহানগর আওয়ামী লীগ
জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদার সাথে পালন করেছে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ। এদিন সকাল ১০টায় কুমারপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ের স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। সকাল সাড়ে ১০ টায় দলীয় কার্যালয় থেকে শোক র‌্যালী বের হয়। শোক র‌্যালীটি নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে দলীয় কার্যালয়ে এসে শেষ হয়। সকাল ১১টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ সকল শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল শেষে দলীয় কার্যালয়ে মানবভোজ বিতরণ করা হয়। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রাজশাহী মহানগরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল। বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সহ-সভাপতি শাহীন আকতার রেনী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য ও মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, যুগ্ম সম্পাদক আহ্সানুল হক পিন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আসলাম সরকার, মীর ইসতিয়াক আহমেদ লিমন, সদস্য আশীষ তরু দে সরকার অর্পণ। সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের উপ-দপ্তর সম্পাদক পংকজ দে। এছাড়াও নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে মাইকযোগে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ও কোরআন তেলাওয়াত প্রচার।

জেলা আওয়ামী লীগ
জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদাতবার্ষিকীতে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর সরকারি ডিগ্রি কলেজ প্রাঙ্গণে সকাল ৯ টায় বৃক্ষরোপন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রাজশাহী জেলার আয়োজনে কর্মসূচির উদ্বোধন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাজশাহী-৫ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আবদুল ওয়াদুদ দারা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বানেশ্বর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ এসএম একরামুল হক, জেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আব্দুস সামাদ, জেলা আ.লীগের দপ্তর সম্পাদক প্রদ্যুৎ কুমার সরকার, জেলার সদস্য অধ্যক্ষ গোলাম ফারুক, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি রাজিবুল হক রাজিব, বানশ্বের ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় বানেশ্বর কলেজ মাঠে বিভিন্ন ধরনের গাছের চারা রোপণ করা হয়।

এছাড়াও বিকালে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আমানুল হাসান দুদু। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াদুদ দারা

রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকী ও সকল শহীদের স্মরণে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) শোক র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয় সিনেট ভবন চত্ত্বর থেকে শোক র‌্যালিটি শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে।

পরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনে সকাল ১০ টায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় মূখ্য আলোচক ছিলেন বিশিষ্ট লেখক ও একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক স্বদেশ রায়, প্রধান অতিথি ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার ও বিশেষ অতিথি হিসেবে কোষাধ্যক্ষ ওবায়দুর রহমান প্রামাণিক উপস্থিত ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ- উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে সহ বিভিন্ন অনুষদ অধিকর্তা, হল প্রাধ্যক্ষ ও বিভাগীয় সভাপতি, বিশিষ্ট শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

রাজশাহী মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয়

জাতীয় শোক দিবসে রাজশাহী মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয়ের (রামেবি) কর্মসূচিতে ছিল সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন, সকাল সাড়ে ৮টায় জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং মোনাজাত করা হয়। এরপর সকাল ১০ টায় জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (রামেবি) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. এ.জেড.এম মোস্তাক হোসেন। আলোচনা সভায় মূখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আবদুল মান্নান। বক্তব্য দেন রামেবির কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. রুস্তম আলী আহমেদ, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. আনোয়ারুল কাদের, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক ডা. আনোয়ার হাবিব, কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন, সহকারী-রেজিস্ট্রার রাসেদুল ইসলাম ।

রুয়েট
রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে পালিত হয়েছে। রুয়েট ভাইস-চ্যান্সেলর (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মো. সাজ্জাদ হোসেনের নেতৃত্বে রুয়েট প্রশাসনের পক্ষ থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে পুষ্পার্ঘ অর্পণ ও শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে সদ্য সাবেক ভাইস-চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম সেখ, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. সেলিম হোসেন, রুয়েট শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. ফারুক হোসেন, ছাত্রকল্যান পরিচালক ও সাধারণ সম্পাদক শিক্ষক সমিতি অধ্যাপক ড. রবিউল আওয়াল, রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. আশরাফুল আলম, পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আব্দুল আলীমসহ শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সোনালী ব্যাংক
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে সোনালী ব্যাংক জেনারেল ম্যনেজার’স অফিসের উদ্যোগে জাতির পিতার প্রতি গভীর শ্রদ্ধাজ্ঞাপনসহ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পনের সময় উপস্থিত ছিলেন সোনালী ব্যাংকের জেনারেল ম্যানেজার মীর হাসান মোহাম্মদ জাহিদসহ কর্মকর্তাবৃন্দ। এছাড়াও দোয়া মাহফিল, বৃক্ষরোপন ও স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়। স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচীতে সহযোগিতা করে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি।

বরেন্দ্র বিশ^বিদ্যালয়

বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. আশিক মোসাদ্দিকের নেতৃত্বে সূর্যোদয়ের সাথে জাতীয় পতাকা দণ্ডের সর্বোচ্চ চূড়া পর্যন্ত উত্তোলন করা হয় এবং নামিয়ে অর্ধনমিত অবস্থায় বেঁধে রাখা হয়। এরপর সকাল ১০ টায় কাজলা ভবনের সেমিনার কক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্যে দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ৪৭ তম শাহাদতবার্ষিকী পালন এবং তাঁর ও তাঁর পরিবারের শহিদ সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উপর আলোচনা, কুইজ প্রতিযোগিতা ও ‘মুজিব আমার পিতা’-অ্যানিমেশন ফিল্ম পরিবেশনের আয়োজন করে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ।

বারিন্দ মেডিকেল কলেজ
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের প্রয়ান দিবসে বারিন্দ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়। শোক দিবসে জাতীয় পতাকা ও কালো পতাকা উত্তোলন, পুস্পস্তবক প্রদান, দোয়া মাহ্ফিল, আলোচনা সভা এবং হাসপাতালে রোগীদের উন্নতমানের খাবার বিতরণের মাধ্যমে অশ্রুসিক্ত ভালবাসায় কর্মসূচি পালন করা হয়। কর্মসূচিতে প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, কলেজের প্রিন্সিপাল, ডাইরেক্টর, প্রফেসর, ডাক্তার, ছাত্র-ছাত্রীসহ সর্বস্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং নার্সিং কলেজের প্রিন্সিপালসহ সকল ছাত্র-ছাত্রী, কর্মকর্তা, কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।