ঢাকা | জুন ১৫, ২০২৪ - ১০:৪৯ অপরাহ্ন

২২ বছর পর রাস্তা পেল আদিবাসীরা

  • আপডেট: Sunday, August 7, 2022 - 11:06 pm

 

পোরশা (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নাম শিয়ালডাংগা। নওগাঁর পোরশা উপজেলার ছাওড় ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের একটি আদিবাসী গ্রাম। ২০০১ সালে গ্রামটি প্রতিষ্ঠিত হয়। তখন থেকে এখানে শুধু আদিবাসী বিভিন্ন গোত্রের নারী-পুরুষের বসবাস। বর্তমানে গ্রামটির ২৬ টি বাড়িতে নারী-পুরুষ, ছেলে-মেয়েসহ প্রায় দেড় শতাধিক লোকের বসবাস। কিন্তু বিগত ২২বছর গ্রামটিতে প্রবেশের কোন রাস্তা ছিল না। গ্রামের সকলেই বিভিন্ন দিক দিয়ে গ্রামে প্রবেশ করতো। এতে চিকিৎসাসহ তাদের ছেলে-মেয়েদের পড়ালেখারও সমস্যা হতো।

বিগত বছরগুলিতে কোন জনপ্রতিনিধিও তাদের রাস্তাটির ব্যপারে পদক্ষেপ নেয়নি বলে তাদের বিস্তর অভিযোগ। তবে যাই হোক এবারে গ্রামে প্রবেশের একটি রাস্তা পেয়ে তারা বেজায় খুশি। এজন্য তারা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ্ মঞ্জুর মোরশেদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান কাজীবুল ইসলাম ও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

শিয়ালডাংগায় বসবাসকারী শ্রী রঞ্জন তিরকী, বিশ্বনাথ খালকো, ধীরেন টপ্প, শ্রীমতি মনিকা খালকো ও বিশদ মনি এক্কা জানান, ২২বছর পর রাস্তা পেয়ে তারা খুব খুশি। তারা নিজেরা গ্রামে সকলেই মিলে চেয়ারম্যানদের সহযোগিতায় রাস্তাটি তৈরি করেছেন। এতে কেউ তাদের বাঁধা দেয়নি বলে তারা জানান।

তারা জানান, রাস্তা না থাকায় বিগত বছরগুলিতে তাদের গ্রামের নারী-পুরুষদের মধ্যে কেউ অসুস্থ হলে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যেতে পারেননি। ছেলে-মেয়েরা ঠিকমত বিদ্যালয়ে যেতে পারেনি। বর্ষা আসলে চলাচলের খুব অসুবিধা হতো। এখন রাস্তাটি হওয়ায় তারা সবই করতে পারছেন। এটা সম্ভব হয়েছে শুধু চেয়ারম্যানদের সহযোগিতার জন্য। এদের মত লোককেই তারা ভবিষ্যতে জনপ্রতিনিধি দেখতে চান বলে জানান। তবে এতদিন পরে রাস্তা দিয়ে নিজ গ্রামে প্রবেশ করতে পারছেন বলে তারা সকলের কাছে কৃতজ্ঞ।