ঢাকা | জুন ১৮, ২০২৪ - ৫:৫১ অপরাহ্ন

আল-কায়েদার প্রতিশোধের আশঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কতা

  • আপডেট: Wednesday, August 3, 2022 - 11:22 am

অনলাইন ডেস্ক: আল-কায়েদার শীর্ষ নেতা আয়মান আল-জাওয়াহিরি হত্যার জেরে জঙ্গি সংগঠনটির দিক থেকে বিদেশে আমেরিকা-বিরোধী সম্ভাব্য সহিংসতার ব্যাপারে দেশের নাগরিকদের সজাগ থাকতে বলেছে যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর এক সতর্ক বার্তায় বলেছে, জাওয়াহিরি হত্যার ঘটনা আল-কায়েদার সমর্থক বা সংশ্লিষ্ট সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগোলোকে যুক্তরাষ্ট্রের স্থাপনা এবং কর্মীদের ওপর হামলায় প্ররোচিত করতে পারে। বুধবার এই খবর দিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি অনলাইন।

গত রোববার আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে যুক্তরাষ্ট্রের ড্রোন হামলায় আল-কায়েদার শীর্ষ নেতা জাওয়াহিরি নিহত হন। যুক্তরাষ্ট্রে নাইন ইলেভেন (৯/১১) হামলার পরিকল্পনায় তিনি সহায়তা করেছিলেন বলে মনে করা হয়। ওই হামলায় তিন হাজার মানুষ নিহত হয়।

২০১১ সালে ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যুর পর ৭১ বছর বয়সী মিসরীয় চিকিৎসক জাওয়াহিরি আল-কায়েদার দায়িত্ব নেন। সোমবার তাকে হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেন, জাওয়াহিরি আমেরিকান নাগরিকদের বিরুদ্ধে ‘হত্যা এবং সহিংসতার একটি নীল নকশা’ করেছিলেন।

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা নিজেদের নাগরিকদের উদ্দেশে জারি করা সতর্ক বার্তায় যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর বলেছে, ৩১ জুলাই জাওয়াহিরির মৃত্যু আমেরিকা-বিরোধী সহিংসতার আশঙ্কা অনেক বাড়িয়ে দিয়েছে বলে পররাষ্ট্র দপ্তর মনে করে। বর্তমান তথ্য এটাই ইঙ্গিত করে যে, সন্ত্রাসী সংগঠনগুলো বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা আমেরিকার স্বার্থ বিরোধী সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনা করছে। আর এই হামলা আত্মঘাতী হামলা, গুপ্তহত্যা, অপহরণ, ছিনতাই এবং বোমা হামলার মতো কৌশল হতে পারে।

এতে আরও বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের বিদেশ ভ্রমণের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করা এবং পরিস্থিতির ব্যাপারে সচেতন হওয়ায় জোর উৎসাহ দেওয়া হলো।

সোনালী/জেআর