ঢাকা | মে ৩০, ২০২৪ - ১:৪০ অপরাহ্ন

এগিয়ে চলেছে নওগাঁ জেলা মডেল মসজিদের নির্মাণ কাজ

  • আপডেট: Friday, July 29, 2022 - 11:54 pm

নওগাঁ প্রতিনিধি: ধীরে ধীরে অবকাঠামো দৃশ্যমান হয়ে উঠছে নওগাঁ জেলা মডেল মসজিদের। কাজ শুরুর দিকে জমি সংক্রান্ত কিছু জটিলতায় কিছুদিন কাজ বন্ধ হয়ে পড়ে। এখন সব কাটিয়ে দ্রুততার সাথে নির্মান কাজ এগিয়ে যাচ্ছে।

নওগাঁ জেলা শহরের প্রধান সড়কে বিএমসি সরকারি মহিলা কলেজের পাশে কেন্দ্রিয় জামে মসজিদের স্থলেই পুরাতন অবকাঠামো সরিয়ে নির্মাণ হচ্ছে নওগাঁ জেলা মডেল মসজিদ।

চারতলা বিশিষ্ট এই মসজিদে থাকবে মুসল্লিদের জন্য সকল ধরনের সুবিধা। মসজিদটির প্রকল্প মূল্য ১৫ কোটি ৬১ লাখ ৮১ হাজার টাকা। চুক্তি মূল্য ১৪ কোটি ৫ লাখ ৫৭ হাজার টাকা। দেশব্যাপি ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপন প্রকল্পের আওতায় নওগাঁ জেলা মডেল মসজিদটি নির্মান করছে নওগাঁ গনপূর্ত ডিভিশন।

নওগাঁ গণপূর্ত অফিস সূত্রে জানা যায় গত ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ সালে নওগাঁ জেলা মডেল মসজিদের নির্মান কাজের উদ্বোধন করেন নওগাঁ সদর আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিষ্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন। নওগাঁ শহরের প্রধান সড়ক চার লেনে উন্নীতকরন হওয়ার সম্ভবনাকে মাথায় রেখে মসজিদটি সাবেক স্থান থেকে ১৭ ফুট পিছিয়ে নির্মান কাজ শুরু হয়। এতে ভ’মি সংকটে পড়ে গনপূর্ত বিভাগ।

পরবর্তিতে পিছনের অংশে নওগাঁ গাঁজা সোসাইটর দীঘির কিছুটা মসজিদের জন্য নেয়ার পরিকল্পনা করা হয়। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতেই পিছিয়ে পড়ে মসজিদ নির্মান কাজ। দীঘিটির ওই অংশ আগের রুপে রেখে পানির গভীর থেকে পাইলিং করে পিলার স্থাপন করা হয়েছে। এতে বিপরীত দিক থেকে দেখলে মনে হবে মসজিদটি পানির উপর নির্মান করা হয়েছে। মোট ৪৩ শতক জমির উপর নির্মানাধীন মসজিদটি ফ্লোর আয়তন ১৮ হাজার ৭শ’ বর্গফুট। মসজিদের প্রথম তলায় থাকবে ঈমাম প্রশিক্ষন কেন্দ্র, অটিজম কর্ণার (অটিজমদের নামাজের স্থান), জানাজা নামাজের ব্যবস্থা, মৃতদেহ গোসল ও কাফনের ব্যবস্থা, ইসলামিক বই লাইব্রেরী, গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা। দ্বিতীয় তলায় থাকবে ইসলামিক রিসার্স সেন্টার ও পুরুষ নামাজ কক্ষ।

তৃতীয় তলায় থাকবে মহিলা নামাজ কক্ষ ও ইসলামিক লাইব্রেরী। চতুর্থ তলায় থাকবে হেফজখানা ও পরিদর্শন বাংলো (অতিথিশালা)। এছাড়াও নামাজের রুম ও কনফারেন্স হলে থাকবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রন ব্যবস্থা, পুরুষ ও মহিলাদের পৃথক অজুখানা ও ওয়াশ রুম, লিফ্ট, জরুরী বর্হিরাগমন ব্যবস্থা, নিরাপত্তার জন্য সিসি ক্যামেরা, রাতে মসজিদের মিনারগুলো যাতে দূর থেকে দেখা যায় ও বিশেষ তাৎপর্যময় দিনগুলোর জন্য স্থায়ী আলোকসজ্জার ব্যবস্থা, নিজস্ব বিদ্যুৎ ব্যবস্থা ও বৈদ্যুতিক সাব ষ্টেশনসহ নানান সুবিধা। নওগাঁ জেলা মডেল মসজিদে কমপক্ষে একসাথে ১১শ’ মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন।

নওগাঁ গনপূর্ত ডিভিশনের নির্বাহী প্রকৌশলী আল মামুন হক বলেন, আগামীতে বরাদ্দ স্বাভাবিক থাকলে এবং নির্মান সামগ্রীর দাম কমলে আশা করছি আগামী এক বছরের মধ্যে কাজ সম্পন্ন করা যাবে।