ঢাকা | মে ২৭, ২০২৪ - ১২:৩৩ পূর্বাহ্ন

পুঠিয়া ও মান্দায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জনের মৃত্যু

  • আপডেট: Tuesday, July 26, 2022 - 11:21 pm

 

সোনালী ডেস্ক: পুঠিয়া সড়ক দুর্ঘটনায় চিকিৎসক ও মান্দায় ব্যাটারি চালিত অটোচার্জারের ধাক্কায় মানসিক ভারসাম্যহীন এক বৃদ্ধ পথচারী নিহত হয়েছেন।

পুঠিয়া প্রতিনিধি জানান, পুঠিয়ায় দুটি মোটর সাইকেলের সংঘর্ষে কফিল উদ্দীন (৫৫) নামের একজন সহকারি চিকিৎসক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় অপর তিন আরোহী গুরুতর আহত হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক রফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, ঘটনা স্থলেই তিনি মারা গেছেন। অপরদিকে স্থানীয় লোকজন আহতদের এখানে আনলেও তাদের লোকজন প্রাইভেটে চিকিৎসা করাবেন বলে বাহিরে নিয়ে গেছেন।

নিহত কফিল উদ্দীন উপজেলার গোপালহাটি গ্রামের বাসিন্দা ও দুর্গাপুর উপজেলার মাড়িয়া উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের সহকারি চিকিৎসক ছিলেন। মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কের গোপালহাটি তেল পাম্পের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদশী আমজাদ আলী বলেন, গত সপ্তাহে স্ত্রীসহ চিকিৎসক কফিল উদ্দীন হজ্ব করে বাড়ি ফিরেছেন। আজকে আছরের নামাজ মসজিদে পড়তে বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে বের হোন। বাড়ি থেকে মহাসড়কে উঠতেই অপর একটি মোটরসাইকেল (তিনজন যাত্রী) তাকে সজরে ধাক্কা মারে। এতে তিনি সড়কেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

এ ব্যাপারে পবা হাইওয়ে থানা (শিবপুরহাট) ওসি মোফাকারুল ইসলাম বলেন, দুটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। দুর্ঘটনায় একজন মারা গেছেন ও অপর মোটরসাইকেল আরোহীরা আহত হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

এদিকে মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি জানান, মান্দায় ব্যাটারি চালিত অটোচার্জারের ধাক্কায় মানসিক ভারসাম্যহীন এক বৃদ্ধ পথচারী নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার ফেরিঘাট-নিয়ামতপুর সড়কের ডাক-বাংলোর পাশে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত বৃদ্ধের নাম আকিম উদ্দিন শাহ (৬৮)। তিনি উপজেলার কাঁশোপাড়া ইউনিয়নের চকউলি গ্রামের বাসিন্দা। জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ৯ টার দিকে আকিম উদ্দিন শাহ পায়ে হেঁটে ফেরিঘাটের দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় ডাক-বাংলোর পাশে ফেরিঘাট থেকে আসা একটি অটোচার্জার তাকে ধাক্কা দেয়। এতে বৃদ্ধ আকিম উদ্দিন পাকা রাস্তায় পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

নিহত আকিম উদ্দিনের ছেলে আরমান শাহ জানান, তাঁর বাবা একজন মানসিক ভারসাম্যহীন রোগী। প্রতিদিন বাড়ি থেকে বের হয়ে একা একা বিভিন্ন এলাকায় চলে যান। গত সোমবার সকালে সবার অগোচরে বেরিয়ে নিরুদ্দেশ হন। এরপর থেকে তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। আজ সকালে সড়ক দুর্ঘটনায় বাবার মৃত্যুর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন তিনি।

এ বিষয়ে মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহিনুর রহমান বলেন, ঘটনায় পবিবারের পক্ষ থেকে থানায় কোনো অভিযোগ দেওয়া হয়নি। অভিযোগ না থাকায় মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।