ঢাকা | মে ২০, ২০২৪ - ১২:৪৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম

গোরস্থানের জমি রক্ষায় এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

  • আপডেট: Sunday, July 17, 2022 - 11:29 pm

 

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর গোদাগাড়ীর পাকড়ী ইউনিয়নের পাকড়ী দক্ষিণপাড়া মদনবাড়িয়া গোরস্থানের জমি রক্ষায় এলাকাবাসী মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে।  রোববার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে পাকড়ী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তায় এলাকাবাসী এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধন থেকে তারা বলেন, এই গোরস্থান তাদের বাবা দাদাদের আমল থেকে চলমান রয়েছে। এইখানে তাদের অনেক আত্মীয় স্বজন চিরনিন্দ্রায় শুয়ে আছেন। অথচ এই এলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তি আব্দুল মান্নান, জয়নাল আবেদীন মিঠু, ফারুক হোসেন, সিরাজুল ইসলাম ও জিল্লার রহমান মিলে যার সাবেক দাগ নং- ১২৮৫, হাল দাগ নং- ১৩২৮, খতিয়ান-৭২/১, মৌজা- ৯২ নং পাকড়ী, মোট জমির পরিমান ১.৮৪ একর। এর মধ্যে উপরোক্ত ব্যক্তিগণ ০.৬৭০০ একর সম্পত্তি তাদের বলে দাবী করেন। সেইসাথে ঐ জমি থেকে তারা কবর ও মানুষের কঙ্কাল তুলে ফেলে । সেইসাথে বিভিন্ন ধরনে গাছ কেটে ফেলেছে বলে অভিযোগ করেন। এছাড়াও তারা সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে এসে জমি দখলসহ এলাকাবাসীকে ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন বলে জানান তারা।

মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন গোরস্থান পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাইফুল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন গোরস্থান কমিটির সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন, সদস্য আব্দুল জলিল, রকিব, নাসির উদ্দিন, গোলাম রসুল, নাজির, আলফাজ, এলাকাবাসী সুফিয়া বেগম, আলেয়া বেগম, মেহেনা বেগম, পাকড়ী ৪নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী, ফরিদ, নাসির উদ্দিন, নয়ন ও মনিরুলসহ এলাকার শত শত নারী পুরুষ।

গোরস্থানের জমি দখল সম্পর্কে জানতে চাইলে আব্দুল মান্নান বলেন, এই ০.৬৭০০ একর সম্পত্তি তার বড় ভাই আব্দুল হান্নানের। সরকারের নিকট হতে সালামীর মারফত আব্দুল হান্নান নেন। ১৯৭২ সালে তার নামে ঐ জমি রেকর্ড হয়। এরপর তার ভাই খাজনা খারিজ করে নিয়েছেন এবং নিয়মিত খাজনা প্রদান করছেন।

রেকর্ড বাতিলের দাবীতে গোরস্থান কমিটির পক্ষ থেকে মামলা হয়েছে। সে মামলা এখন চলমান রয়েছে। মামলায় যিনি জিতবেন জমি তার হবে বলে তিনি জানান। তবে তার ভাইয়ের জমি জোরপূর্বক দখল করে রাখার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান আব্দুল মান্নান।