ঢাকা | মে ২০, ২০২৪ - ৫:৪১ পূর্বাহ্ন

রাজশাহীতে ঈদের আমেজ এখনও কাটেনি, ফেরেনি কর্মচাঞ্চল্য

  • আপডেট: Tuesday, July 12, 2022 - 10:56 pm

 

স্টাফ রিপোর্টার: ঈদুল আজহার টানা তিন দিনের সরকারি ছুটি শেষ। মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে অফিস-আদালত খুলেছে। কিন্তু রাজশাহী শহর এখনও ফাঁকা। সকাল থেকে প্রথম কর্মদিবস শুরু হলেও রাজশাহীর অফিসপাড়ায় ঈদের আমেজ কাটেনি। ফেরেনি চিরচেনা সেই কর্মচাঞ্চল্য।

তবে নাড়ির টানে গ্রামের বাড়িতে ঈদ করতে আসা কর্মজীবী অনেক মানুষ এরইমধ্যে রাজধানী ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছেন। এজন্য মঙ্গলবার রাজশাহী রেলস্টেশন ও বাস টার্মিনালে লোক সমাগম ছিল।

এদিকে ঈদের পর প্রথম কার্যদিবসে আজ লোকজন কম থাকায় বিভিন্ন সরকারি দফতর ব্যাংক-বীমাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কাজ-কর্ম চলছে ঢিলে-ঢালাভাবে। ছুটি শেষে যারা অফিসে গেছেন তাদের সময় কাটছে কোলাকুলি, ঈদের শুভেচ্ছা ও কুশলাদি বিনিময় করেই। সবাই নিজ নিজ কর্মস্থলে যোগ না দেওয়ায় অফিসপাড়া জমেনি। কাজের চাপ কম থাকায় দুপুরের মধ্যে অনেকেই বাড়ি ফিরেছেন।

রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, নগর ভবন, রেল ভবন, পানি উন্নয়ন বোর্ড, রেশম বোর্ড, খাদ্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর, রাজশাহী উন্নয়ন ও বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, পুলিশ কমিশনার কার্যালয়, সড়ক ভবনসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কার্যালয়ে গিয়ে দেখা গেছে একই চিত্র। আবার ছুটি শেষে নানা কারণে অনেকই বাড়ি থেকে ফিরতে না পারায় কর্মস্থল জমেনি।

এদিকে ঈদের ছুটি শেষে রাজশাহী জেলা প্রশাসন ছাড়াও রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকসহ বিভিন্ন বেসরকারি ব্যাংকেও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতির হার তুলনামূলকভাবে অনেক কম লক্ষ্য করা গেছে। মহানগরের প্রধান প্রধান সড়কগুলোতেও সকাল থেকেই নামমাত্র যানবাহন চলাচল করছে।

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের লোন মনিটরিং অফিসার সাকির আহমেদ বলেন, গত রোববার (১০ জুলাই) ঈদ উদযাপন হয়েছে। ঈদ উপলক্ষে ৯, ১০ ও ১১ জুলাই (শনিবার, রোববার ও সোমবার) সরকারি ছুটি ছিল। তবে এবার ঈদের সরকারি ছুটির আগের দিন শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটি ছিল। তাই বৃহস্পতিবার শেষ কর্মদিবস ছিল। সব মিলিয়ে টানা চার দিনের ঈদের ছুটি ভোগ করেছেন সবাই। সোমবার (১১ জুলাই) ঈদুল আজহার ঘোষিত ছুটি শেষ হয়েছে। ফলে মঙ্গলবার (১১ জুলাই) ফের অফিস খুলেছে। কিন্তু সরকারি-বেসরকারি যেসব কর্মজীবী ঈদ উদযাপন করতে গেছেন তাদের অনেকে ১২ ও ১৩ জুলাইও ঐচ্ছিক ছুটি নিয়েছেন। ফলে অফিস-আদালতে পুরোদমে কাজ-কর্ম শুরু হতে রোববার (১৬ জুলাই) পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।