ঢাকা | মে ১৯, ২০২৪ - ৪:৫৯ পূর্বাহ্ন

গঙ্গা-পদ্মা, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদীর পানি বাড়ছে

  • আপডেট: Saturday, July 2, 2022 - 2:32 pm

অনলাইন ডেস্ক: দেশের অতিবন্যা প্রবণ চার নদ-নদীর পানি সমতল বাড়ছে। তবে কেবল ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

শনিবার (২ জুলাই) পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র এমন তথ্য জানিয়েছে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া জানিয়েছেন,ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদ-নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে, যা রোববার (৩ জুলাই) পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

এছাড়া গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে, যা মঙ্গলবার (৫ জুলাই) পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

এদিকে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সব প্রধান নদ-নদীসমূহের পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে, যা সোমবার (৪ জুলাই) পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

এই অবস্থায় দেশের কুড়িগ্রাম, সিলেট, সুনামগঞ্জ, নেত্রকোণা, কিশোরগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে।

শনিবার যমুনার পানি বিভিন্ন স্থানে ১ থেকে ৬ সেন্টিমিটার বেড়েছে। ব্রহ্মপুত্রের পানি দু’টি স্থানে বেড়েছে ৬ সেন্টিমিটার পর্যন্ত। গঙ্গার পানি বিভিন্ন স্থানে ৩২ থেকে ৩৮ সেন্টিমিটার বেড়েছে। আর পদ্মার পানি বিভিন্ন স্থানে বেড়েছে ৬ থেকে ১২ সেন্টিমিটার পর্যন্ত।

পাউবো জানিয়েছে, তাদের পর্যবেক্ষণাধীন বিভিন্ন নদ-নদীর ১০৯টি পয়েন্টের মধ্যে শনিবার পানি সমতল বেড়েছে ৫৮টিতে, কমেছে ৪৭টিতে, আর অপরিবর্তিত আছে চারটি পয়েন্টের পানি সমতল।

এখন পাঁচটি নদীর পানি ছয়টি পয়েন্টে বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ব্রহ্মপুত্র নদের পানি হাতিয়া পয়েন্টে প্রবাহিত হচ্ছে বিপৎসীমার ২৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, সুরমার পানি কানাইঘাটে প্রবাহিত হচ্ছে ৪৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, পুরাতন সুরমার পানি দিরাইতে প্রবাহিত হচ্ছে বিপৎসীমার ১৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে।

এছাড়া কুশিয়ারার পানি অমলশীদে বিপৎসীমার ৬৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে ও শেওলায় ২৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। আর কলমাকান্দা পয়েন্টে সোমেশ্বরীর পানি প্রবাহিত হচ্ছে বিপৎসীমার ৩০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে।

সোনালী/জেআর