ঢাকা | মে ২০, ২০২৪ - ৪:৪৬ পূর্বাহ্ন

বিদেশি কর্মীদের জন্য রিয়াদ-মুম্বাই-ইসলামাবাদের চেয়ে ব্যয়বহুল ঢাকা

  • আপডেট: Thursday, June 30, 2022 - 11:52 am

অনলাইন ডেস্ক: বিদেশি কর্মজীবীদের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর হংকং। এ তালিকায় ঢাকার অবস্থান দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে শীর্ষে। এমনকি সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদ, ভারতের গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যকেন্দ্র মুম্বাই ও পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদের চেয়ে বেশি ব্যয়বহুল বাংলাদেশের রাজধানী।

বিদেশি কর্মজীবীদের জন্য সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহরের একটি তালিকা বুধবার প্রকাশ করেছে নিউইয়র্কভিত্তিক প্রতিষ্ঠান মার্সার।

বিশ্বের চার শতাধিক শহরের দুই শতাধিক পণ্য ও সেবার মূল্যের ভিত্তিতে এ জরিপের ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে।

তালিকায় ঢাকার অবস্থান ৯৮তম। যা দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে শীর্ষে। আগের বছর ঢাকার অবস্থান ছিল ৪০তম।

এ বছর মার্সার সারা বিশ্বের ২২৭টির বেশি শহরে জরিপ পরিচালনা করে এ সূচক তৈরি করেছে। আবাসন, পরিবহন, খাদ্য, পোশাক, গৃহস্থালি পণ্যসামগ্রী, বিনোদনসহ প্রতিটি শহরের দুই শতাধিক পণ্য ও পরিষেবার তুলনামূলক খরচের ভিত্তিতে এ সূচক তৈরি করা হয়েছে। এ বছরের মার্চের জীবনযাপনের খরচের ভিত্তি ধরে এ হিসাব করা হয়েছে।

সূচকে দক্ষিণ এশিয়ার ব্যয়বহুল শহরের তালিকায় ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাই ১২৭তম, নয়াদিল্লি ১৫৫তম, চেন্নাই ১৭৭তম ও বেঙ্গালুরু ১৭৮তম, শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোর অবস্থান ১৮৩তম, ভারতের হায়দরাবাদের ১৯২তম, পুনে ২০১তম ও কলকাতা ২০৩তম অবস্থানে রয়েছে।

দক্ষিণ এশিয়ায় প্রবাসীদের জীবনযাপনের জন্য সবচেয়ে কম ব্যয়বহুল শহর এখন পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদ ও দেশটির বন্দরনগরী করাচি। বৈশ্বিক হিসাবে এ শহর দুটির অবস্থান যথাক্রমে ২২৪ ও ২২৩তম।

ব্যয়বহুল শহরের তালিকায় হংকংয়ের পরে রয়েছে সুইজারল্যান্ডের চার শহর— জুরিখ, জেনেভা, বাসেল ও বের্ন। ছয়ে ইসরায়েলের তেল আবিব, সাতে আছে নিউইয়র্ক, আটে সিঙ্গাপুর, নয়ে টোকিও ও দশে বেইজিং।

সোনালী/জেআর