ঢাকা | মে ২০, ২০২৪ - ১২:২৫ অপরাহ্ন

টেক্সাসে লরিতে পাওয়া গেলো ৪৬ মরদেহ

  • আপডেট: Tuesday, June 28, 2022 - 12:10 pm

অনলাইন ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রে একটি লরির ভেতরে পাওয়া গেছে ৪৬ জনের মরদেহ। ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্সের মঙ্গলবারের (২৮ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানা যায়।

দেশটির টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের সান আন্তোনিও শহরের উপকণ্ঠে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। মৃতদের সকলেই অভিবাসী বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে জানা যায়, লরির চালক পলাতক অবস্থায় রয়েছেন এবং সান আন্তোনিও পুলিশ বিভাগের পক্ষ থেকে তাকে খোঁজা হচ্ছে।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মরদেহ উদ্ধার হওয়া ওই লরির ছবি ছড়িয়ে পড়ে খুব দ্রুতই।

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় কেএসএটি নামের টেলিভিশন চ্যানেল জানায়, সান আন্তোনিও শহরের দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে একটি রেল ট্র্যাকের পাশে লরিটিকে খুঁজে পাওয়া যায়।

এদিকে স্থানীয় আরেকটি সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে পাওয়া যায়, লরি থেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা অন্তত ১৬ জনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এদের সকলের শারীরিক অবস্থা আলাদা আলাদা।

সান আন্তোনিও শহরটি যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত থেকে প্রায় ২৫০ কিলোমিটার (১৫০ মাইল) দূরে অবস্থিত। গ্রীষ্মকালে সেখানে সোমবার (২৭ জুন) ৩৯ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত তাপমাত্রা উঠেছিল।

মেক্সিকোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্সেলো ইব্রার্ড জানিয়েছেন, দূতাবাস যাওয়ার পথেই লরিটিকে পাওয়া গেছে। তাৎক্ষনিকভাবে নিহতদের জাতীয়তা জানা যায়নি। মেক্সিকান দূত ওই স্থানে যাচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট এ ঘটনার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকেই দায়ী করেছেন এবং এই ঘটনাকে বাইডেনের ‘উন্মুক্ত সীমান্ত নীতির ফলাফল’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

সোনালী/জেআর