ঢাকা | মে ১৯, ২০২৪ - ৫:৪১ পূর্বাহ্ন

‘রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে বিশৃঙ্খলার প্রমাণ হলেই বহিষ্কার’

  • আপডেট: Saturday, June 25, 2022 - 11:39 am

অনলাইন ডেস্ক:  রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাধ্যক্ষ পরিষদের আহ্বায়ক অধ্যাপক ফেরদৌসী মহল বলেছেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন আবাসিক হলে বিশৃঙ্খলার অভিযোগ প্রমাণিত হলেই তাদের বহিষ্কার করা হবে। জোরপূর্বক হলের সিট থেকে নামানো কিংবা অনাকাঙ্খিত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে প্রাধ্যক্ষ পরিষদ সমন্বিতভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। তাছাড়া আবাসিক হলে কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা মেনে নেয়া হবে না।’

শুক্রবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব আব্দুল লতিফ হলে প্রাধ্যক্ষ পরিষদের এক জরুরি সভা শেষে এসব কথা বলেন আহ্বায়ক অধ্যাপক ফেরদৌসী মহল।

আহ্বায়ক বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে শৃঙ্খলা রক্ষা ও পড়াশোনার সুষ্ঠু পরিবেশ রক্ষার্থে সমন্বিতভাবে সব রকমের ব্যবস্থা গ্রহণে কাজ করবে প্রাধ্যক্ষ পরিষদ। সকল শিক্ষার্থী হল প্রশাসনের মাধ্যমেই বৈধপন্থা অবলম্বনের মাধ্যমে হলে উঠার যোগ্যতা রাখে। অবৈধভাবে কেউ হলে থাকার অধিকার রাখে না।

হল প্রাধ্যক্ষ পরিষদের আহ্বায়ক আরো বলেন, হলে কে থাকবে, কে থাকবে না; কে উঠবে, কে উঠবেনা -সেটা হল প্রশাসন দেখবে। কোন শিক্ষার্থী এবিষয়ে হস্তক্ষেপ করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। হলে বিশৃঙ্খলার দায়ে কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে। এ বিষয়ে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলে জানান এ আহ্বায়ক।

উল্লেখ্য, গত ১০ দিনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন আবাসিক হলে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীকে হল থেকে নামিয়ে দেয়াসহ অবৈধভাবে সিট দখলের অভিযোগ রয়েছে। সর্বশেষ গতকাল ২৪ জুন মধ্যরাতে আবাসিক শিক্ষার্থীকে মারধর করে হল থেকে বের করে দেয়ার অভিযোগ উঠে হল শাখা ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। তাছাড়া হলগেটে তালা ও বিশৃঙ্খলার মতো ঘটনার অভিযোগ দীর্ঘদিনের।

আবাসিক হলে ছাত্রলীগের এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক প্রাধ্যক্ষ ও শিক্ষক। হলে এমন অনাকাঙ্খিত ঘটনা নিরসনে প্রশাসনের কার্যকরী পদক্ষেপের পাশাপাশি অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন শিক্ষকরা।