ঢাকা | মে ২১, ২০২৪ - ৬:৪৪ অপরাহ্ন

আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে জনগণকে রাস্তায় নামার ডাক বাইডেনের

  • আপডেট: Saturday, June 25, 2022 - 8:06 pm

 

অনলাইন ডেস্ক: মার্কিন নারীদের গর্ভপাতের সাংবিধানিক অধিকার বাতিল করে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট যে রায় দিয়েছে, তাকে ‘নিষ্ঠুর’বলে আখ্যা দিয়ে এই রায়ের বিরুদ্ধে শান্তিপূর্ণভঅবে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ শুরু করতে অধিকারকর্মী ও সাধারণ নাগরিকদের আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এই রায়ের বিরুদ্ধে শান্তিপূর্ণভঅবে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ শুরু করতে অধিকারকর্মী ও সাধারণ নাগরিকদের আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

হোয়াইট হাউসে দেয়া এক ভাষণে বাইডেন বলেন, আজকের দিনটি আমাদের ইতিহাসের একটি দুঃখের দিন। আদালত মানুষের সাংবিধানিক অধিকার কেড়ে নিচ্ছে, যা আমরা আগে কখনও দেখিনি। এই রায় এতটাই নিষ্ঠুর যে এখন থেকে একজন মার্কিন নারী ও তরুণীরা ধর্ষকদের সন্তানও জন্ম দিতে বাধ্য থাকবে।

১৯৭৩ সালে ঐতিহাসিক ‘রো বনাম ওয়েড’ মামলার রায়ের মাধ্যমে নারীদের গর্ভপাতের অধিকারকে যে সাংবিধানিক স্বীকৃতি দিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট, শুক্রবার তা বাতিল করা হয়েছে। মিসিসিপির রাজ্য সরকার গর্ভধারণের ১৫ সপ্তাহের পর গর্ভপাত নিষিদ্ধ করাকে চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা এক মামলায় রাজ্য সরকারের পক্ষে রায় দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট।

ফলে মার্কিন নারীরা গত ৫০ বছর ধরে থেকে গর্ভপাতের যে সাংবিধানিক অধিকার ভোগ করে আসছিলেন, তা কার্যত রোহিত হয়ে যায় এবং গর্ভপাতের অনুমোদন দেওয়া বা না দেওয়ার ক্ষমতা প্রতিটি অঙ্গরাজ্যের ওপর ছেড়ে দেওয়া হয়।

কিন্তু এই রায়ের মাধ্যমে সুপ্রিম কোর্ট আসলে যুক্তরাষ্ট্রের নারীদের জীবন ও স্বাস্থ্য ঝুঁকির মুখে ফেলেছে উল্লেখ করে বাইডেন বলেন, আমাদের দেশের নারীদের স্বাস্থ্য ও জীবন আজ ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে; আর একটি ব্যাপার হলো, এই রায় আমাদের সমাজের মূলনীতিতে কুঠারাঘাত করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের সমাজব্যবস্থা সমতার ওপর প্রতিষ্ঠিত, এই সমাজে একজন নারী তার নিজের ভবিষ্যৎ নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা রাখেন; আজ আদালত নারীর সেই অধিকার কেড়ে নিল।

এই রায়ের বিরুদ্ধে জনগণকে প্রতিবাদ করার আহ্বান জানিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, কিন্তু এখানেই শেষ নয়। যারা যুক্তরাষ্ট্রে গর্ভপাতের অধিকার নিয়ে লড়ে যাচ্ছেন, এখনও শেষ কথা বলার বাকি আছে।