ঢাকা | জুলাই ১৪, ২০২৪ - ১১:০৯ অপরাহ্ন

আড়ানির আলোচিত মেয়র মুক্তার আবার গ্রেপ্তার

  • আপডেট: Tuesday, June 7, 2022 - 10:35 pm

 

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানি পৌরসভার মেয়র মুক্তার আলী আবার গ্রেপ্তার হয়েছেন। তাঁর বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনের একটি মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি ছিল। বাঘা থানা পুলিশের সহায়তায় জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্যরা সোমবার দিবাগত রাতে আড়ানি পৌর এলাকার পিয়াদাপাড়া মহল্লার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

রাজশাহী জেলা ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, অস্ত্র মামলায় উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়েছিলেন মেয়র মুক্তার আলী। কিন্তু উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী তিনি আর নিম্ন আদালতে হাজির হননি। তাই উচ্চ আদালতের জামিনের মেয়াদ শেষ হলে নিম্ন আদালত তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

এই গ্রেপ্তারি পরোয়ানার ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে আলোচিত মেয়র মুক্তার আলীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবারই তাকে আদালতে তোলা হবে বলেও জানান ডিবি পুলিশের পরিদর্শক রবিউল ইসলাম।

মুক্তার আলী ২০১৫ সালে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে প্রথমবার পৌরসভার মেয়র হন। এরপর গতবছরের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেলেও ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী হয়ে মেয়র হন। দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করায় তাকে পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়।

গত বছরের জুলাইয়ে তিনি এলাকার এক কলেজশিক্ষককে পিটিয়ে আহত করেন। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মামলা করেন ওই শিক্ষক। পরে ওই রাতেই তাঁর বাসায় অভিযান চালায় পুলিশ। অভিযানে বাড়ি থেকে অস্ত্র, মাদক ও নগদ প্রায় এক কোটি টাকা উদ্ধার করে পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয় মেয়রের স্ত্রী এবং ভাতিজাকে। কয়েকদিন পর ঈশ্বরদী থেকে গ্রেপ্তার হন মুক্তার।

এরপর সেদিন মুক্তারকে নিয়ে আবার তার বাড়িতে অভিযান চালানো হলে নগদ টাকা ও মাদক উদ্ধার হয়। ওই সময় মুক্তারের বিরুদ্ধে তখন কয়েকটি মামলা হয়। সে সময় কয়েকমাস কারাগারে থাকেন মুক্তার। স্থানীয় সরকার বিভাগ তখন তাকে সাময়িক বরখাস্তও করে। পরে জামিনে কারাগার থেকে বের হয়ে উচ্চ আদালতে গিয়ে মেয়রের দায়িত্ব ফিরে পান তিনি।