ঢাকা | এপ্রিল ১৯, ২০২৪ - ৫:২৬ অপরাহ্ন

প্রেমিকাকে পেতে সেলসম্যানের চাকরি নিয়েছিলেন কেকে

  • আপডেট: Thursday, June 2, 2022 - 1:15 pm

অনলাইন ডেস্ক: অসংখ্য গান উপহার দিয়ে সুরে সুরে শ্রোদের বুঁদ করে রেখেছেন ভারতীয় উপমহাদেশ জনপ্রিয় গায়ক কেকে (কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ)। এই কেকেই নাকি নিজের প্রেমিকা জ্যোতি কৃষ্ণাকে বিয়ে করতে সেলসম্যানের চাকরি নিয়েছিলেন। গল্পটা অবশ্য আজকের কেকে হয়ে উঠার আগে।

১৯৯১ সালের ঘটনা এটি। আজকের কেকে তখন কেবলই কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ। সাধারণ একজন তরুণ। কাজ নেই বেকার যুবক এক। বেকারত্বের কারণে প্রেমিকাকে হারাতে বসছিলেন। প্রেমিকাকে বিয়ের জন্য প্রেমিকার বাবা-মা শর্ত জুড়ে দেন, ছেলেকে চাকরি করতে হবে। ব্যাস কেকে চাকরি নেন সেলসম্যান হিসেবে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এক প্রতিবেদনে জানাচ্ছে, কপিল শর্মা শোতে হাজির হয়ে এই গল্প শুনিয়েছিলেন কেকে। জানিয়েছিলেন, ‘প্রিয় মানুষকে বিয়ে করার জন্য প্রতিষ্ঠিত হওয়ার প্রয়োজন ছিল। বেকার ছেলের সঙ্গে কেউ মেয়ে বিয়ে দিতে চায় না। সে কারণে সেলসম্যানের চাকরি নিয়েছিলাম। ছয় মাস বিক্রয়কর্মী হিসেবে কাজ করতে হয়েছিল।’

এই চাকরি প্রসঙ্গে মুভি টকিজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কেকে জানিয়েছিলেন, ‘আমার জন্য একটি চাকরি নেওয়া প্রয়োজন ছিল, না হলে তারা আমাকে জিজ্ঞেস করত আমি কী করি এবং আমি যদি বলতাম গান করি, তাহলে আমাকে উপেক্ষা করত…।’

কেকে ১৯৯১ সালে প্রেমিকা জ্যোতির সঙ্গে বিবাহবন্ধনে বাঁধা পড়েন। বিয়ের বেশ কয়েক বছর পর তারকাখ্যাতি পান তিনি। হিন্দি, বাংলা, তামিল, তেলেগু, কন্নড়, মালয়ালাম, মারাঠি ভাষায় প্লেব্যাক করে তুমুল খ্যাতি পাওয়া সংগীতশিল্পী হিসেবে আগমনের পূর্বে প্রায় তিন হাজার ৫০০ বিজ্ঞাপনের জিঙ্গেলে কণ্ঠ দিয়েছেন।

গতকাল ৩১ মে কলকাতার নজরুল মঞ্চে একটি কনসার্টে পারফর্ম করার পর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন কেকে। ময়নাতদন্ত শেষে তাঁর মহদেহ মুম্বাইয়ে নেওয়ার কথা রয়েছে। আজ সকালে স্ত্রী জ্যোতি দুই সন্তানকে নিয়ে কলকাতায় গিয়েছেন।

সোনালী/জেআর