ঢাকা | জুলাই ১৮, ২০২৪ - ৩:৪৩ অপরাহ্ন

চোরাই ছাগল নিয়ে ধরা পড়ে দুজন পরিচয় দিলেন পুলিশ-সাংবাদিক

  • আপডেট: Monday, May 30, 2022 - 8:47 pm

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে চুরি করা ছাগল নিয়ে ধরা পড়ে দুই যুবক নিজেদের পুলিশ ও সাংবাদিক হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন। তবে তাতেও শেষ রক্ষা হয়নি। পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করেছে। এ সময় দুজনের কাছ থেকে চুরি করা একটি ছাগল, দুটি হাতকড়া, নামসর্বস্ব অনলাইন পত্রিকার পরিচয়পত্র, মোটরসাইকেল ও কয়েকটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার দুজন হলেন- রাজশাহী মহানগরীর শাহমখদুম থানার বনতলা (আবাসিক সপুরা) এলাকার রানা আহম্মেদ (৩৬) ও নওগাঁর মান্দা উপজেলার চক জামদৈই গ্রামের শফিকুল ইসলাম (২৭)। রানা একজন ভুয়া সাংবাদিক। তিনি সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে নানা অপকর্ম করেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। তাঁর কাছেই নামসর্বস্ব অনলাইন পত্রিকার পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। রোববার রাতে নগরীর কোর্ট স্টেশন মোড় থেকে কাশিয়াডাঙ্গা থানা পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তার করে।

কাশিয়াডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মাসুদ পারভেজ জানান, রাত ১০টার দিকে চেকপোস্ট বসিয়ে ডিউটি করছিল পুলিশ। রানা ও শফিকুল মোটরসাইকেলে ছাগল নিয়ে আসছিলেন বলে পুলিশের সন্দেহ হয়। তাদের থামালে একজন ডিবি পুলিশের এসআই এবং অপরজন নিজেকে কনস্টেবল বলে পরিচয় দেন। তাদের কর্মস্থল ও ব্যাচ সম্পর্কে জানতে চাইলে তারা অস্বাভাবিক আচরণ করতে শুরু করেন।

পরবর্তীতে মোটরসাইকেল চালক রানা তার পকেট থেকে আইডি কার্ড বের করে নিজেকে এবার সাংবাদিক পরিচয় দেন। এতে পুলিশের সন্দেহ আরও বেড়ে যায়। এ সময় তল্লাশি করলে রানার কাছ থেকে এক জোড়া হ্যান্ডকাপ পাওয়া যায়। এ সময় তাদের কাছে থাকা চোরাই ছাগল এবং ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ও মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে দুজন জানান, তারা নওগাঁ কোর্ট এলাকা থেকে হ্যান্ডকাপ সংগ্রহ করে পুলিশ পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন স্থানে চাঁদাবাজি, প্রতারণা, চুরি, ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধ করে আসছিলেন। রোববার তারা রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার বড়শিপাড়া থেকে ছাগলটি চুরি করে আনেন। এ বিষয়ে দুজনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।