ঢাকা | এপ্রিল ২১, ২০২৪ - ৮:২৭ পূর্বাহ্ন

ভাঙন ঠেকানোর দাবিতে গোদাগাড়ীতে মানববন্ধন

  • আপডেট: Saturday, May 21, 2022 - 10:26 pm

 

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় পদ্মা নদীর ভাঙন থেকে প্রায় চার কিলোমিটার এলাকা রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন হয়েছে। গোদাগাড়ীর দেওপাড়া ইউনিয়নের আলীপুর নিমতলা থেকে পূর্বে খারিজাগাতি মোল্লাপাড়া পর্যন্ত পদ্মা নদীর পাড়ে চার কিলোমিটার এলাকাজুড়ে এই মানববন্ধন হয়।

শনিবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত মানববন্ধন কর্মসূচি চলে। এতে আশপাশের স্কুলের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং সাধারণ গ্রামবাসী অংশ নেন। পদ্মার ভাঙন থেকে এলাকা রক্ষায় গঠিত নাগরিক কমিটির ব্যানারে এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা জানান, প্রায় ২০ বছর পর গত ভরা মৌসুমে আলীপুর, নিমতলা, খারিজাগাতি ও মোল্লাপাড়া এলাকায় পদ্মার তীরে ভাঙন দেখা দেয়। গতবছরই অনেকটা জায়গা পদ্মায় বিলিন হয়ে যায়। জরুরি ভিত্তিতে বালুভর্তি জিও বস্তা ফেলে ভাঙন ঠেকানোর চেষ্টা চলে। এরপর স্থায়ী বাঁধ নির্মাণে ২৮০ কোটি টাকার একটি প্রকল্প হাতে নেয় পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)। এতে তারা স্বস্তি পান। কিন্তু এখন আর প্রকল্পের কাজ এগোচ্ছে না।

বক্তারা বলেন, গত মৌসুমে বালুভর্তি বস্তা ফেলতে যত টাকা ব্যয় করা হয়েছে তার চার ভাগের এক ভাগও কাজ হয়নি। এলাকাটি এখন চরম ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছে। নদীতে বিলিন হওয়ার আশঙ্কায় আছে আমবাগান, ফসলের খেত, কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মন্দির ও অনেক ঘরবাড়ি। তাই তারা দ্রুত স্থায়ী বাঁধ নির্মাণের প্রকল্প বাস্তবায়নের দাবি জানান।

কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন নাগরিক কমিটির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইদুর রহমান। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- সদস্য সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. কাবাজুদ্দীন, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহ মোহাম্মদ, ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহাবুবুর রহমান, জাতীয় আদিবাসী পরিষদের জেলার সভাপতি বিমল চন্দ্র রাজোয়াড় প্রমুখ।