ঢাকা | এপ্রিল ১৫, ২০২৪ - ৫:৩৫ পূর্বাহ্ন

হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ ফেলে পালালো স্বামী

  • আপডেট: Friday, May 20, 2022 - 11:15 pm

 

মোহনপুর প্রতিনিধি: মোহনপুরে যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে নির্যাতন ও শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ করেছে নিহতের পরিবারের সদস্যরা। পরে মোহনপুর উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে পালিয়েছে স্বামী ও তার স্বজনরা। শুক্রবার সন্ধ্যার পর মরদেহের সুরতহাল করেছে মোহনপুর থানা পুলিশ।

নিহতের স্বজনরা জানান, সাত মাস আগে মোহনপুর উপজেলার বাকশিমইল গ্রামের আশরাফ আলী ছেলে শিমুল হোসেন (২৪) এর সাথে একই উপজেলার ঘাসি গ্রামের মাজেদুল ইসলাম মৃধার মেয়ে কারিমা আক্তার মিম (২০) এর বিয়ে হয়।

বিয়ের পর থেকে যৌতুকের জন্য ও পারিবারিক বিরোধের জেরে গৃহবধূকে স্বামী, শ্বাশুড়ি মিলে নির্যাতন করতো। এরই জের ধরে গতকাল শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪ টার সময় মারধরের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। কিন্তু স্বামীর বাড়ির লোকজন গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার করে। পরে গৃহবধূকে মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এসময় হাসপাতালে মরদেহ রেখে স্বামী ও তার স্বজনরা পালিয়ে যায়।

নিহতের স্বজনরা আরও অভিযোগ করেন, স্বামী ও শ্বাশুড়ি মিলে নির্যাতনের পর শ্বাসরোধ করে মিমকে হত্যা করেছে।

মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তৌহিদুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে মোহনপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।