ঢাকা | এপ্রিল ১৬, ২০২৪ - ১:২৬ পূর্বাহ্ন

১৪ দিনের শিশু নিয়ে গেল মাকে অচেতন করে

  • আপডেট: Wednesday, May 18, 2022 - 11:50 am

অনলাইন ডেস্ক: ১৪ দিন বয়সী শিশুপুত্রকে ডাক্তার দেখাতে গিয়ে গাড়ির জন্য রাস্তায় অপেক্ষা করছিলেন মা জেনি আক্তার। এ সময় একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা এসে দাঁড়ায় তার সামনে। সিএনজিতে উঠে দেখেন সেখানে এক নারী। সীতাকুণ্ডের জোড় আমতল থেকে ভাটিয়ারী যাওয়ার পথে ওই নারী জেনি আক্তারের মাথায় হাত বুলিয়ে দিয়ে বলেন, ‘আপনার বাচ্চাটা তো সুন্দর।’

এ কথা শোনার পর আর কিছু মনে নেই জেনির। এরপর তাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে দিয়ে সন্তান নিয়ে চম্পট দেন ওই নারী। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার ভাটিয়ারী এলাকায়। এ ব্যাপারে সীতাকুণ্ড মডেল থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে।

উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের বিএম ডিপোর পূর্ব পাশে মোল্লাপাড়া গ্রামের ইয়াসিনের স্ত্রী জেনি আক্তার। তিনি বলেন, ‘আমি আমার ১৪ দিন বয়সের শিশুপুত্রকে ডাক্তার দেখাতে নিয়ে যাই উপজেলার জোড়া আমতল এলাকায়। ডাক্তারের সাক্ষাৎ না পেয়ে ভাটিয়ারীতে যাওয়ার জন্যে রাস্তায় দাঁড়ালে আমার সামনে একটি সিএনজি এসে দাঁড়ায়। চালক কোথায় যাব জিজ্ঞেস করেন।

আমি ভাটিয়ারী যাব বলে গাড়িতে উঠে দেখি এক নারী বসা। কিছুদূর যাওয়ার পর ওই নারী আমার মাথায় হাত বুলিয়ে দিয়ে বলে- আপনার বাচ্চাটা তো সুন্দর আছে। আমাকে একটু দেন দেখি। মাথায় হাত লাগানোর পর থেকে আমার মাথা ঘুরতে থাকে। আমি তার দিকে তাকিয়ে আছি, কিন্তু কোনো কথা বলার শক্তি পাচ্ছি না। ভাটিয়ারী শহীদ মিনারের সামনে আসার পর আমাকে বলেছে, আপনি গাড়ি থেকে নামুন, বাচ্চা দিচ্ছি। আমি নামামাত্রই সিএনজিটি চলে যায়।’

তিনি বলেন, ‘আমাকে চেতনানাশক ওষুধ লাগিয়ে আমার শিশুকে নিয়ে পালিয়ে যায় ওই নারী ছিনতাইকারী। কিছুক্ষণ পর আমি স্বাভাবিক জ্ঞানে ফিরলে আমার সন্তানকে খুঁজতে থাকি।’ এ ব্যাপারে সীতাকুণ্ড মডেল থানায় তিনি বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে জানান।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সুমন বণিক বলেন, ‘এ ঘটনায় থানায় শিশু মা বাদী হয়ে একটি মামলার প্রক্রিয়া চলছে। শিশুটিকে উদ্ধারের চেষ্টাও চলছে।’

সোনালী/জেআর