ঢাকা | এপ্রিল ১৮, ২০২৪ - ৪:৪৭ পূর্বাহ্ন

বিশ্বকাপে নিষিদ্ধ ইনজেকশন নিয়েছিলেন রিজওয়ান

  • আপডেট: Monday, May 9, 2022 - 7:51 pm

 

অনলাইন ডেস্ক: সবশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল ম্যাচের আগে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন পাকিস্তানি উইকেটকিপার ব্যাটার ও ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান। তবে সুস্থ হতে বেশি সময় লাগেনি। তবে কিভাবে এতো দ্রুত সুস্থ হলেন- সে সম্পর্কে এতদিন ধোঁয়াশাই ছিল। অবশেষে জানা গেল আসল ঘটনা। নিষিদ্ধ ইনজেকশন নিয়েছিলেন তিনি।

সুস্থ হয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের একাদশেও ছিলেন রিজওয়ান। ওপেনিংয়ে ব্যাট করতেও নেমেছিলেন তিনি। শুধু তাই নয়, দুর্দান্ত ফর্মে থাকা এই ব্যাটার পেয়েছিলেন অর্ধ-শতকের দেখা। আউট হওয়ার পূর্বে ৫২ বলে করেছিলেন ৬৭ রান। যদিও শাহিন শাহ আফ্রিদির খরুচে বোলিংয়ে ফাইনালে উঠা হয়নি পাকিস্তানের। ম্যাথু ওয়েডের মারকুটে ব্যাটিংয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে অস্ট্রেলিয়া।

রিজওয়ানের অতি দ্রুত সুস্থ হওয়ার কারণ অতপর দীর্ঘ ছয় মাস পর জানা গেল। পিসিবির অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে আপলোডকৃত ভিডিওতে এ বিষয়ে রিজওয়ানের সঙ্গে কথা বলেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চিকিৎসক নাজিব সোমরো। তিনিই নিষিদ্ধ ইনজেকশনের কথা নিশ্চিত করেছেন।

রিজওয়ানের শ্বাসনালী প্রায় পুরোটাই ব্লক ছিল। যে কারণে খুবই উচ্চমাত্রার একটি ইনজেকশন নেওয়া প্রয়োজন ছিল তার। সেই ইনজেকশন আবার যেকোনো ক্রীড়াবিদের জন্য নিষিদ্ধ। তাই রাত ৩টার সময় খানিক বিপদেই পড়ে গিয়েছিলেন সোমরো। তবু আইসিসির অনুমতি নিয়ে রিজওয়ানকে দেওয়া হয় সেই ইনজেকশন।

রিজওয়ানের সঙ্গে দেয়া সাক্ষাতকারের এক পর্যায়ে সোমরো বলেন, ‘তুমি শ্বাস নিতে পারছিলেন না। তোমাকে সুস্থ করে তুলতে আইসিসির অনুমতি নিয়ে আমি ওই ইনজেকশন পুশ করেছিলাম। এটা সাধারণত ক্রীড়াবিদদের জন্য নিষিদ্ধ। কিন্তু কোনো বিকল্প ছিল না। ইনজেকশন দিতে আইসিসির সম্মতি নিতে হয়েছিল।’